ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২

সোনাদিয়ায় উদ্ধার ১৪৯ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর

প্রকাশ: ২০২২-০৩-২৩ ০১:৪৬:৪৭ || আপডেট: ২০২২-০৩-২৩ ০১:৪৬:৪৭

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সাগরপথে অবৈধভাবে মালেয়শিয়া যাওয়ার সময় কক্সবাজারের মহেশখালীর সোনাদিয়ায় উদ্ধার ১৪৯ রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোরে তিনটি বাসে করে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে সোমবার বিকেলে মহেশখালীর সোনাদিয়া দ্বীপ থেকে এসব রোহিঙ্গাকে মহেশখালী থানার পুলিশ উদ্ধার করে।

উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গারা দালালদের সহযোগীতায় মালয়েশিয়ায় যাওয়ার জন্য কক্সবাজারের উখিয়া টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে সোনাদিয়া দ্বীপে জড়ো করে বলে সূত্রে জানা গেছে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গারা জানিয়েছে কয়েক দিন আগে থেকে এসব রোহিঙ্গাদের মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়ার কথা বলে একটি বড়ো ইঞ্জিন চালিত বোটে তুলে দালাল চক্র। পরে সোমবার দুপুরে তাদেরকে মহেশখালীর সোনাদিয়া দ্বীপে নামিয়ে দিয়ে দালাল চক্র বোট নিয়ে পালিয়ে যায়।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: রফিকুল ইসলাম সত্যতা নিশ্চত করে জানিয়েছেন মহেশখালীর সোনাদিয়া দ্বীপ প্রথমে ১৩৫ জন রাতে আরো ১৪ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়।

সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী উদ্ধার এ-সব রোহিঙ্গাদের নোয়াখালীর ভাসান চরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তিনি জানান উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে দালালরা কৌশলে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া নিয়ে যেতে মহেশখালীর সোনাদিয়ায় জড়ো করে।

এসময় খবর পেয়ে মহেশখালী থানার পুলিশ সোনাদিয়া দ্বীপে অভিযান পরিচালনা করে এসব রোহিঙ্গাদের উদ্ধার করে।

ইতিপূর্বে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ২২ হাজারেরও অধিক রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে।