ঢাকা, সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২

ফলোআপঃ সেই লাশের পরিচয় মিলেছে, মামলা দায়ের

প্রকাশ: ২০২২-০৩-১৩ ১৮:৩০:৪৩ || আপডেট: ২০২২-০৩-১৩ ১৮:৩০:৪৩

 

কাপ্তাই প্রতিনিধি:
কাপ্তাই বিএফআইডিসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত টয়লেট থেকে পাওয়া অজ্ঞাত নারীর লাশের পরিচয় মিলেছে। ওই নারীর নাম হাছিনা বেগম সুমি (৩০)। স্বামী ইমাম উদ্দীন।

সে উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নের মৃত মোঃ আশরাফ আলীর মেয়ে। এঘটনায় নিহত সুমির মা আমেনা বেগম বাদী হয়ে রবিবার কাপ্তাই থানায় দু’জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৫ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহতের মা আমেনা বেগম তার মেয়েকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার কাপ্তাই বিএফআইডিসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত টয়লেটে বোরখা পরিহিত মুখ থেতলানো, রক্তাক্ত ও পোড়া ওই নারীর লাশ দেখতে পায় শিক্ষার্থীরা। পরে বিদ্যালয়ের দপ্তরী সাদ্দাম ও প্রধান শিক্ষক মোঃ ইউছুফের সহযোগীতায় ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে কাপ্তাই ফাঁড়ির পুলিশ সদস্যরা।

এদিকে, রবিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন রাঙামাটি জেলা পুলিশ সুপার মীর মোদদাছছের হোসেন, জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহামুদা বেগম, কাপ্তাই সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রওশন আরা রব, কাপ্তাই থানার ওসি মোঃ জসীম উদ্দীন, কাপ্তাই পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ শাহীনুর রহমান।

এসময় রাঙামাটি জেলা পুলিশ সুপার মীর মোদদাছছের হোসেন বলেন, এটি স্বাভাবিক মৃত্যু নয়, এটি হত্যাকান্ড। তবে তদন্ত সাপেক্ষে বিস্তারিত জানা যাবে বলে তিনি জানান।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী সুমির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রবিবার রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।