ঢাকা, সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২

আলোয়াখোয়া ইউনিয়নে দায়িত্বভার হস্তান্তর

প্রকাশ: ২০২২-০১-১৬ ১৭:৫৩:৪১ || আপডেট: ২০২২-০১-১৬ ১৭:৫৩:৪১

 

আটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় পাঁচটি ইউনিয়নে তৃতীয় ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় গত ২৮ নভেম্বরে। ৫ টি ইউনিয়নের মধ্যে ৩ টিতে নৌকার মাঝিরা বিজয়ী লাভ করেন। তার মধ্যে নৌকাকে বিপুল পরিমাণ ভোটে বিজয়ী করেন উপজেলার আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের নৌকার মাঝি মোঃ মোজাক্কারুল আলম কচি।

গত ১১ জানুয়ারী আনুষ্ঠানিক ভাবে শপথ বাক্য পাঠ করেন তিনি। ইউনিয়নবাসীর কল্যাণে ও এলাকার উন্নয়নে নিজেকে সার্বক্ষণিক নিয়োজিত রাখার ব্রতই ছিল তার শপথের মূল অঙ্গীকার।

তারই ধারাবাহিকতায় রবিবার (১৬ জানুয়ারি) ৩-নং আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ মোজাক্কারুল আলম কচিকে ইউপি বাসীর আয়োজনে ইউনিয়ন পরিষদ মাঠ প্রাঙ্গনে এক বিশেষ আনন্দমূলক সংবর্ধনা ও দায়িত্বভার হস্তান্তর করা হয়।

উক্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের আঃলীগের সিঃ সভাপতি ছত্রনাথ রায়ের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পঞ্চগড় জেলা আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার সাদাত সম্রাট।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান এবং উক্ত ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান প্রদীপ কুমার।

সাবেক চেয়ারম্যান প্রদীপ কুমার ইউনিয়ন পরিষদের নতুন চেয়ারম্যান মোঃ মোজাক্কারুল আলম কচি’কে নতুন করে ক্ষমতা হস্তান্তর করেন।

প্রদীপ কুমার বলেন, আমি বিগত বছর গুলোতে যেমন করে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দ্বায়িত্ব পালন করেছি হয়তো কোন জায়গায় ভুলত্রুটি থাকতেই পারে তাই আমি আশাবাদী যে নতুন চেয়ারম্যান মোঃ মোজাক্কারুল আলম কচি অনেক ভালো মানুষ তিনি অত্যান্ত দ্বায়িত্বশীলতার সাথে ইউনিয়ন বাসীর উন্নয়নে ও কল্যাণে কাজ করবেন।

নতুন চেয়ারম্যান মোঃ মোজাক্কারুল আলম কচি বলেন, ১১ তারিখে শপথের মধ্যে দিয়ে আমি ইউনিয়ন বাসীর সকল দায়িত্ব আমার কাঁধে নিয়েছি। ইউনিয়নের আনাচে কানাচে দেশনেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ছোয়া পৌঁছে দিতে আমি সর্বদা সত্যের পথে থেকে কাজ করে যাবো। এলাকার উন্নয়নে ও মানুষের কল্যাণে তিনি নিরলস ভাবে কাজ করে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।

আনোয়ার সাদাত সম্রাট বলেন, আলোয়াখোয়া ইউনিয়ন বাসী দেশরত্ন ও দেশের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য নৌকাকে বিজয়ী করেছে তাই নেত্রীও এই ইউনিয়ন বাসীর ভাগ্যে উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন। দীর্ঘ দিন ধরে এলাকার অবরুদ্ধ উন্নয়নকে এবার জাগ্রত করে রাস্তা ঘাট, পুল সাঁকো সহ সার্বিক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়।