ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২

ভুমিষ্ট করানোর অভিযোগে ডাক্তারের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ: ২০২১-১২-০৩ ১৯:০৭:৪৪ || আপডেট: ২০২১-১২-০৩ ১৯:০৭:৪৪

অনলাইন ডেস্কঃ

কেন তাঁকে ভূমিষ্ঠ করা হল? কেনই বা তাঁর মাকে প্রসবের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল? এই অভিযোগ তুলে মায়ের চিকিৎসকের বিরুদ্ধে কোটি টাকার মামলা করলেন এক তরুণী। সেই মামলায় জিতেও গেলেন তিনি। এমন ঘটনা হয়তো কস্মিনকালেও কেউ শোনেননি। এই ঘটনা রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে।

এভি টোম্বিস। ব্রিটেনের বছর কুড়ির এই তরুণীই তাঁর মায়ের চিকিৎসকের বিরুদ্ধে এমন মামলা করেছেন। কিন্তু কেন?

দ্যা সান-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী- শারীরিক দুর্বলতা নিয়ে জন্ম হয়েছে এভির। জন্ম থেকেই স্পাইনা বিফিডা নামক রোগে আক্রান্ত এই তরুণী। মেরুদণ্ডের এই অসুখের জন্য কখনো কখনো ২৪ ঘণ্টাই টিউবের সাহায্যে চলতে হয় এভিকে। আর এই ব্যাধির জন্যই চিকিৎসক ফিলিপ মিচেলকে আদালতে টেনে নিয়ে যান এভি।

এভির অভিযোগ- অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন সময়ে তাঁর মাকে সঠিক পরামর্শ দেননি ওই চিকিৎসক। যদি তিনি মাকে বলতেন তাঁর সন্তান স্পাইনা বিফিডা-য় আক্রান্ত হতে পারে, আর সেই ঝুঁকি কমাতে ফলিক অ্যাসিডযুক্ত খাবার এবং ওষুধ খাওয়া প্রয়োজন, তা হলে হয়তো তাঁর এই অবস্থা হত না। বা তাঁকে জন্ম দিতে চাইতেন না তাঁর মা।

এটি একটি নজিরবিহীন মামলা বলে উল্লেখ করেছে লন্ডন হাই কোর্ট। বিচারপতির পর্যবেক্ষণ, যদি সঠিক সময়ে এভি-র মাকে এ বিষয়ে অবহিত করা হত, তা হলে তিনি সন্তানধারণের বিষয়ে দেরি করতে পারতেন। শুধু তাই নয়, সুস্থ সন্তানের জন্ম দিতে পারতেন। এভি-র মা-ও একই অভিযোগ তুলেছেন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে।

এভি-র যুক্তিকে সমর্থন করেই শেষমেশ চিকিৎসককে বিপুল অঙ্কের জরিমানার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

সুত্রঃ দৈনিক আনন্দবাজার, ৩/১২,