ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২

রাজাপালংয়ের নৌকা প্রার্থীকে মদ্যপায়ী বলে ডোপ টেস্টের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন স্বতন্ত্রপ্রার্থী জামী চৌধুরী

প্রকাশ: ২০২১-১১-০৭ ২২:০৮:১৩ || আপডেট: ২০২১-১১-০৭ ২২:০৮:৪০

নিজস্ব প্রতিবেদক:

উখিয়ায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে রাজাপালং ইউনিয়নের দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে চলছে অভিযোগ- পাল্টা অভিযোগ। এবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীকে মধ্যপায়ী বললেন ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাদমান জামী চৌধুরী।

শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে রাজাপালং ইউনিয়নে হিজলিয়াপালং এলাকায় নিজের নির্বাচনী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন আমার কাছে তথ্য আছে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ফলিয়াপাড়াস্থ বহুতল ভবনের তৃতীয় তলায় বসে নিয়মিত মদ্যপান করেন। সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে আমি চ্যালেঞ্জ করে বলতে চাই জাহাঙ্গীর ভাই এবং আমাকে ডোপ টেস্ট করা হউক। কে মাদক সেবন করে তখন প্রমাণ পাওয়া যাবে।

আমার নির্বাচনী পক্ষ অর্থাৎ নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সিকদার বিলে তাঁর একটি জনসভায় বলেছেন আমার কাছে অস্ত্র আছে। অস্ত্র আমার কাছে নয়, আপনার কাছে আছে।

এতোদিন সরকারি ১২ হাজার কেজি চাল চুরির একটি দূর্নীতি মামলার কথা বলেছি। যার নং- ১৮/২০১৯। যা আপনার সরকারের আমলে হয়েছে। এছাড়াও অবৈধ অস্ত্র এবং অপহরণ মামলার ১৭৮/২০১৫ চার্জশীট ভূক্ত আসামী আপনি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী।

জামী বলেন, আমি তার বিরুদ্ধে মানহানিকর কোন কথা বলতে চাই না। তিনি আমার বড় ভাই। তাছাড়া তিনি দুইবারের চেয়ারম্যান। আমাকে প্রতিনিয়ত হুমকি-ধমকি দিয়ে বাধ্য করা হচ্ছে। তিনি আমার জয় নিশ্চিত দেখে বারবার সুষ্ঠু নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছেন।

এ সময় জামী এও বলেন, আমার প্রতিপক্ষ রোহিঙ্গা এবং স্থানীয়দের সমন্বয়ে ৫০জন করে টীম করে ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রসমূহ কুতুপালং, ফলিয়াপাড়া, পাতাবাড়ি, ডেইলপাড়া, উখিয়া স্কুল কেন্দ্র দখল করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রশাসনের সর্বোচ্চ সহযোগিতা কামনা করেছেন।

এর আগে নৌকার প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী স্বতন্ত্রপ্রার্থী (ঘোড়া প্রতীক) সাদমান জামী চৌধুরীকে ইয়াবা সেবনকারী বলে মানহানি করেছে এমনটি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।