ডেস্ক নিউজ
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩ ৩:০৫ পিএম

 

ঈদগাঁও প্রতিনিধি।

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার শষ্যভান্ডার খ্যাত ধনকা বিলে ধান কাটা শুরু করতে পারছেননা চাষীরা।
ফসল কাটার মাস অগ্রাহায়ন শেষ হতে চলছে,তবুও এখানে শুরু হয়নি ধান কাটা।

উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের মধ্যখানে আনুমানিক তিন সহস্রাধিক হেক্টর আয়তনের এ বিলে চাষকৃত আমন ধান এখনো পাকেনি।
কৃষকরা বলছেন, জলাবদ্ধতার কারনে গত ভাদ্র আশ্বিন মাসে আমন ধান রোপন করতে প্রায় দেড় মাস বিলম্ব হয়েছে। তাই ধান পাকার মৌসূমও পিছিয়ে গিয়েছে। গত কয়েক বছর ধরেই বর্ষায় এরকম জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে বিলজুড়ে।এর কারন অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে উদ্বেগজনক তথ্য।

ভূমি মালিক, কৃষক ও বর্গা চাষীরা বলছেন, গত প্রায় দুই দশক ধরে ধনকা বিল থেকে ক্রমাগত টপ সয়েল কেটে নেয়া হচ্ছে। এতে প্রতি বছর বিলের জমি নীচু হতে হতে পুরো বিল এখন প্রায় পুকুরের মত হয়ে গেছে। তাই বর্ষায় সামান্য বৃষ্টি হলেই পানি জমে বিলজুড়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়।

ভূমি মালিক হামিদ বলেন, বিলের দক্ষিণ পাশে পানি নিস্কাশনের খাল আছে। কিন্তু এখন খালের চেয়ে বিল অন্ততঃ গড়ে পাঁচ ছয় ফুট নীচু হয়ে গেছে। ফলে ঐ খাল দিয়ে আর পানি নিস্কাশন হয়না। তাই জলাবদ্ধতা এখন বিলের নিত্যসঙ্গী। ফলে আমন ধান রোপন, উৎপাদন ও সংগ্রহ পিছিয়ে যাচ্ছে প্রতিবছর।

এলাকাবাসী জানান, প্রতি বছর আমন ধান কাটা শেষে পৌষ-মাঘ মাসে শুরু হয় ফসলী জমির ওপরের অংশ (টপ সয়েল) কাটার প্রতিযোগিতা।
কৃষক জাফর আলম বলেন, বিলজুড়ে ডজন খানেক শক্তিশালী এক্সেভেটর (ভেকু) নামিয়ে রাতদিন টপ সয়েল কাটা শুরু করে কয়েকটি সিন্ডিকেট। শতাধিক ডাম্প ট্রাকযোগে এসব মাটি সরবরাহ করা হয় বিভিন্ন ইট ভাটায়। এভাবে আবার রবি ধান রোপন পর্যন্ত দেড় দুই মাস দরে চলে ভয়াবহ এ টপ সয়েল কাটা।

স্হানীয়রা বলেন, ধনকা বিলের দুইটি ইট ভাটা ছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন এলাকার আরো অন্ততঃ দশটি ইট ভাটা ধনকা বিল থেকে মাটি সংগ্রহ করে৷
এর ফলে বিলের দো ফসলী উর্বর জমিগুলো নীচু হতে হতে এখন কোমর সমান গভীরতার জলাভূমিতে পরিণত হয়েছে।

তাই প্রতি বছর আমন মৌসূম পিছিয়ে যায়। এর ধারাবাহিকতায় এ বছর এখনো ধানকাটা শুরু করতে পারেননি কৃষকরা। জমির উপরের উর্বর অংশ কেটে নেয়ায় একই সাথে কমছে ধান উৎপাদন।

এলাকার সচেতন মহল বলেন, এভাবে টপ সয়েল কাটা বন্ধ না হলে শষ্য ভান্ডার খ্যাত ধনকা বিল বিরান ও পরিত্যক্ত জলাভূমিতে পরিণত হতে বেশী দেরী লাগবেনা৷ এমনটি হলে এলাকায় খাদ্য সংকট দেখা দেবে।

ঈদগাঁও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুবল চাকমা বলেন, ফসলী জমি থেকে কেউ টপ সয়েল কাটলে আইনগত ব্যাবস্হা নেয়া হবে।

পাঠকের মতামত

প্রকৃতির স্বার্থে সেন্টমার্টিন ও বন রক্ষা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব : প্রধান বন সংরক্ষক

           জাহাঙ্গীর আলম সেন্টমার্টিন দেশের মূল্যবান সম্পদ উল্লেখ করে বন অধিদপ্তরের প্রধান বন সংরক্ষক আমির ...

উখিয়ায় করাতকল ও গোল কাঠ জব্দ

         শহিদুল ইসলাম। কক্সবাজারের উখিয়ায় যৌথ অভিযান চালিয়ে অবৈধ করাত কল ও গোলকাঠ জব্দ করেছে প্রশাসন।এসময় ...

উখিয়ায় রোহিঙ্গা খেলোয়াড় নিয়ে চলছে অনুমতিবিহীন ফুটবল টূর্ণামেন্ট, চাঁদাবাজির অভিযোগ! 

         নিজস্ব প্রতিবেদক:: কক্সবাজারের উখিয়ায় রেফারী এসোসিয়েশন ও ক্রীড়া সংস্থার অনুমতিবিহীন রোহিঙ্গা খেলোয়াড় দিয়ে চলছে সোনাইছড়ি ...

টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ ও বরইতলী ঘাটে অভিযানঃবিপুল পরিমাণ খাদ্যপণ্য সহ আটক-৬

         প্রতিনিধি। কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ ও বরইতলী ঘাটে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ খাদ্যপণ্য ও অকটেনসহ ...

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযানঃঅস্ত্র-গুলি সহ আরসার সদস্য আটক

         শহিদুল ইসলাম। কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র-গুলিসহ মিয়ানমারের সন্ত্রাসী সংগঠন আরসা’র এক সদস্যকে ...

মেরিনড্রাইভ সড়কে বর যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস দুমড়েমুচড়ে আহত-৪

           আব্দুস সালাম টেকনাফ (কক্সবাজার) কক্সবাজারের টেকনাফের মেরিনড্রাইভ সড়কে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুমড়েমুচড়ে মারাত্মকভাবে ...

হোয়াইক্যংয়ে অবৈধভাবে কবরস্থানে স্থাপনা নির্মাণ ইউএনও’র উচ্ছেদ

           প্রতিনিধি। টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাঞ্জরপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের কবরস্থানের জায়গা জোরপুর্বক দখল করে ...