প্রকাশিত: এপ্রিল ৫, ২০২৩ ১০:৫৪ পিএম

রামু প্রতিনিধি::
কক্সবাজারের রামুতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ২ কলেজ ছাত্রীসহ ৩ জনকে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ। বুধবার, ৫ এপ্রিল সকাল ৯ টায় রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের চা বাগান পাহাড়িয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- ওই এলাকার মৃত সিরাজুল হকের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৫), কক্সবাজার সরকারি কলেজের স্নাতক ৪র্থ বর্ষের ছাত্রী সাবেকুন নাহার (২৫) ও একই কলেজে স্নাতকোত্তর অধ্যয়নরত জান্নাতুল ফেরদৌস (২৭)। আহতদের রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলাকার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স ও স্থানীয় ইউপি সদস্য আমিন উদ্দিন মনু।

হামলাকার শিকার সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন- বাড়ির পাশর্^বর্তী ঘেরাবেড়া প্রতিবারের মতো সংস্কার করছিলেন। বুধবার সকালে দুজন শ্রমিক কাজ শুরু করে। এসময় স্থানীয় আনু মিয়ার ছেলে আমান উল্লাহ ও তার ভাইয়েরা এসে কোন কারণ ছাড়াই কাজে বাঁধা দেয়। বাঁধা দেয়ার কারণ জানতে চাইলে আমান উল্লাহ ও তার ভাই এবাদুল্লাহ, তৈয়ব উল্লাহ ও এরশাদ উল্লাহ সহ পরিবারের অন্যান্যরা দা লাটি-সোটা নিয়ে অতর্কিতভাবে সাইফুল ইসলামকে মারধর শুরু করে।

এসময় ভাইকে বাঁচাতে এসে হামলার শিকার হন সাইফুল ইসলামের কলেজ পড়ুয়া দুই বোন সাবেকুন নাহার ও জান্নাতুল ফেরদৌস।

সাইফুল ইসলাম আরো জানান- হামলায় তার বাম পাশের চোখে গুরতর রক্তাক্ত জখম হয়েছে। এছাড়া সাবেকুন নাহারের দুটি আঙ্গুল কেটে গেছে। ক্ষতবিক্ষত আঙ্গুলে ৭টি সেলাই দিতে হয়েছে। অপর বোন জান্নাতুল ফেরদৌসকেও পিটিয়ে রক্তাক্ত করা হয়েছে। ইতিপূর্বেও তাদের উপর এভাবে কয়েকদফা হামলা চালিয়েছিলো আমান উল্লাহ ও তার পরিবারের সদস্যরা। একের পর এক বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় সাইফুল ইসলাম ও তার পরিবারের সদস্যরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ ব্যাপারে রামু থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান সাইফুল ইসলাম।
জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স জানান- পথের পাশে ঘেরাবেড়া দেয়ার বিষয় নিয়ে নিরীহ ৩ ভাইবোনকে ব্যাপক মারধর করা হয়েছে। যা চরম অন্যায় ও দূঃখজনক। যদি জমি বা চলাচলের পথ নিয়ে কোন সমস্যা থাকলে পরিষদের বা থানায় অভিযোগ দেয়া যেত। কিন্তু তা না করে এভাবে হামলা চালানো বেআইনী। তিনি দুপক্ষকে নিয়ে বিষয়টি সমাধানের উদ্যোগ নেবেন বলেও জানান।

ইউপি সদস্য আমিন উদ্দিন মনু জানান- পবিত্র রমজান মাসে এভাবে একটি পরিবারকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করার ঘটনা মেনে নেয়া যায়না। তিনি এ ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

 

পাঠকের মতামত

ঘটনাপ্রবাহঃ রামুতে ২ কলেজ ছাত্রীসহ ৩ জনকে কুপিয়ে জখম

মেরিনড্রাইভ সড়কে বর যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস দুমড়েমুচড়ে আহত-৪

           আব্দুস সালাম টেকনাফ (কক্সবাজার) কক্সবাজারের টেকনাফের মেরিনড্রাইভ সড়কে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুমড়েমুচড়ে মারাত্মকভাবে ...

হোয়াইক্যংয়ে অবৈধভাবে কবরস্থানে স্থাপনা নির্মাণ ইউএনও’র উচ্ছেদ

           প্রতিনিধি। টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাঞ্জরপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের কবরস্থানের জায়গা জোরপুর্বক দখল করে ...

অস্ত্র-গুলিসহ আটক-১

         শহিদুল ইসলাম। কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র-গুলি সহ এক রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করেছে আর্মড ...

স্ত্রী-সন্তানের সাথে অ্যাম্বুলেন্সে করে শেষবার কক্সবাজার এলেন শাহ জালাল

            ডেস্ক রিপোর্ট বেইলি রোড ট্র্যাজেডিতে মারা যাওয়া কাস্টমস কর্মকর্তা ও তার স্ত্রী-সন্তানের মরদেহ ...