সিএসবি ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২ ৮:৫২ এএম

২ কোটি ৬৪ লাখ ১১ হাজার ১৪১ টাকার আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা করেছে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) স্ত্রীর বিরুদ্ধে ৭৯ লাখ ৫৭ হাজার ১৯৩ টাকা এবং গত ২৮ আগস্ট স্বামীর বিরুদ্ধে ১ কোটি ৮৪ লাখ ৫৩ হাজার ৯৪৮ টাকার আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের পৃথক দুটি মামলা করা হয়।

দুদকের সমন্বিত রাজশাহী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আমির হোসাইন বাদী হয়ে মামলা দুটি করেন। নগরীর গোরহাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা কামরুজ্জামান মুকুল রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার জোতকার্তিক বিএন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী শিক্ষক। তিনি রাজশাহী নিউ মার্কেট এলাকার সিটি পলিটেকনিক অ্যান্ড টেক্সটাইল ইনস্টিটিউটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। সিটি টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবেও কর্মরত। তার স্ত্রী মারুফা নগরীর রাজপাড়া থানা এলাকার আদর্শ মহিলা টেকনিক্যাল ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ।

দুদক জানায়, মারুফা খানম দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে উল্লেখ করেছেন, তার নামে ১ কোটি ৬৪ হাজার ৬২৫ টাকা মূল্যের স্থাবর ও ৭ লাখ ৫৪ হাজার টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ রয়েছে। এর মধ্যে তার ১ কোটি ৮ লাখ ১৮ হাজার ৬২৫ টাকা মূল্যের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ এবং ১৯ লাখ ৫ হাজার ৫৬৪ টাকা ঋণ রয়েছে।

কিন্তু অনুসন্ধানকালে দুদক জানতে পারে, মারুফার নামে স্থাবর ১ কোটি ৬৪ হাজার ৬২৫ টাকার ও ৪ লাখ ৩০ হাজার ৫৩৮ টাকার অস্থাবর সম্পদ রয়েছে। মোট সম্পদ ১ কোটি ৪ লাখ ৯৫ হাজার ১৬৩ টাকার। তার ঋণ পাওয়া যায় ১৭ লাখ ৪৯ হাজার ৮৪১ টাকা। ঋণ বাদে মারুফা খানমের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের মূল্য দাঁড়ায় ৮৭ লাখ ৪৫ হাজার ৩২২ টাকা।

অথচ তার বৈধ আয় পাওয়া যায় মোট ৯ লাখ ৪৫ হাজার ৭৫৪ টাকা। তার পারিবারিক ব্যয় ১ লাখ ৫৭ হাজার ৬২৫ টাকা। পারিবারিক ব্যয়সহ অর্জিত সম্পদ ৮৯ লাখ ২ হাজার ৯৪৭ টাকা। ফলে তিনি অসাধু উপায়ে জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসংগতিপূর্ণ ৭৯ লাখ ৫৭ হাজার ১৯৩ টাকা মূল্যের সম্পদের মালিকানা অর্জন করেছেন।

এটি দুর্নীতি দমন কমিশন আইন-২০০৪ এর ২৭(১) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ কারণে দুদক বাদী হয়ে মারুফা খানমের বিরুদ্ধে একটি মামলা করে।

এদিকে, মারুফার স্বামী কামরুজ্জামান মুকুল ১ কোটি ৫১ লাখ ৬৩ হাজার টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন। সেইসঙ্গে আয়বহির্ভূত ১ কোটি ৮৪ লাখ ৫৩ হাজার টাকার সম্পদ অর্জন করেছেন বলে অনুসন্ধানে জানতে পারে দুদক। এজন্য তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বেসরকারি কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন মারুফা ও তার স্বামী মুকুল। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে এ দম্পতি সনদ-বাণিজ্য করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। মুকুলের বিরুদ্ধে করা দুদকের মামলায় সেটিও বলা হয়েছে। সম্প্রতি  জোতকার্তিক গ্রামের একটি খুনের ঘটনায় আসামি হয়েছেন মুকুল। এরপর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন।

পাঠকের মতামত

ঘটনাপ্রবাহঃ অবৈধ সম্পদ

আদালত থেকে পালানো আসামি গ্রেফতার

জানুয়ারী ২২, ২০২৩
৯:৩৬ পিএম

মান্দায় যুবকের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় আটক-৩

সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২২
৮:১১ পিএম
  • উখিয়ায় সাতলাখ পিস ইয়াবা উদ্ধারঃ গ্রেফতার-৪
  • টেকনাফে পুলিশের অভিযানে একাধিক মামলার পলাতক আসামি মোরশেদ অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেফতার
  • মেরিন ড্রাইভ সড়কে মটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা সহ নিহত-২
  • উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযানঃহ্যান্ডগ্রেনেড, ওয়াকিটকি, অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা’র চার সন্ত্রাসী আটক
  • টেকনাফে র‌্যাবের অভিযানে কোটি টাকার আইসসহ আটক-১
  • এভারেস্ট জয় করেছেন চট্টগ্রামের বাবর
  • সংস্কার অভাবে মরণ ফাঁদে পরিণত রুমখাঁপালং-হাতিরঘোনা স্কুল সড়ক
  • সারা দেশের নাগরিক সুপ্রিম কোর্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের সুফল পাবে : প্রধান বিচারপতি
  • টেকনাফ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ
  • টেকনাফে পুলিশের অভিযানে একাধিক মামলার পলাতক আসামি মোরশেদ অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেফতার

               আব্দুস সালাম,টেকনাফ (কক্সবাজার) কক্সবাজারের টেকনাফে বাহারছড়া শীলখালি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ডাকাতি, অপহরণ ও অস্ত্র ...

             আরস সন্ত্রাসীদের আস্তানায় তল্লাশী চালিয়ে  ৪ টি হ্যান্ডগ্রেনেড,২টি একনলা বন্দুক,৪টি ওয়ান শুটারগান,১টি দেশীয় তৈরি এস ...

    সারা দেশের নাগরিক সুপ্রিম কোর্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের সুফল পাবে : প্রধান বিচারপতি

              অনলাইন ডেস্ক কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গনে বিচারপ্রার্থীদের জন্য নির্মিত বিশ্রামাগার ‘ন্যায়কুঞ্জ’ ...

    টেকনাফ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ

               আব্দুস সালাম,টেকনাফ( কক্সবাজার) কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে কর্মরত কৃষি কর্মকর্তা জাকিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে সরকারী ...