ঢাকা, শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

‘তারেক রহমান দুর্নীতিতে অনার্স, মানি লন্ডারিংয়ে মাস্টার্স করেছে‘

প্রকাশ: ২০২২-০৮-০১ ২২:৪৪:২০ || আপডেট: ২০২২-০৮-০১ ২২:৪৪:২০

বার্তা পরিবেশকঃ

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ‘দুর্নীতিতে অনার্স’ আর ‘অর্থপাচারে মাস্টার্স’ করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম। তিনি বলেছেন, বিএনপি আগুন সন্ত্রাসী হিসেবে বিশ্বে পরিচিত।

২০১৪ সালে বোমা মেরেছিল, গাড়িতে আগুন দিয়েছিল বিএনপি। ২০১৮ সালে মনোনয়ন বাণিজ্য করেছে। কোটি কোটি টাকা নিয়ে সকালে একজনকে আবার বিকেলে অন্যজনকে মনোনয়ন দিয়েছে তারেক রহমান।

শনিবার (৩০ জুলাই) দুপুরে নাটোরের সিংড়া শহর রক্ষা বাঁধ, রবীন্দ্র সরোবর, নজরুল সরোবর ও জীবনানন্দ সরোবর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে এনামুল হক শামীম বলেন, মা হিসেবে আপনি কলঙ্কিত। আপনার ছেলে তারেক রহমান দুর্নীতিতে অনার্স আর মানিলন্ডারিংয়ে মাস্টার্স করেছে। নায়ক আর খলনায়ক কখনো এক হতে পারে না। ইতিহাসে সিরাজ উদ-দৌলা সিরাজ উদ-দৌলাই থাকে, মীরজাফর মীরজাফরই থাকে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ করে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী বলেন, আপনারা ক্ষমতায় থাকাকালে দুর্নীতিতে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। আপনার নেত্রী খালেদা জিয়া এতিমের টাকা চুরি করে জেলখানায় থাকার কথা ছিল। প্রধানমন্ত্রীর দয়ায় এখন বাড়িতে বসবাস করছেন। আমরা যখন বিরোধীদলে ছিলাম বিএনপির শাসনামলে পুলিশি নির্যাতনে বাড়িতে থাকতে পারিনি। অন্যের বাড়িতে থেকেছি। তখন ছিল পুলিশি রাষ্ট্র।

বিএনপিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আপনারা নির্বাচনে আসেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে আমরা বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারতাম না। দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম ও ৩০ লাখ শহীদদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আজ আমরা স্বাধীন। দীর্ঘ ৩৮ বছর চলনবিল ছিল সন্ত্রাসীদের কবলে। না ছিল রাস্তা, না ছিল বিদ্যুৎ। নির্বাচন আসলে অতিথি পাখির মতো সবাই এসে নির্বাচিত হয়ে জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।

তিনি আরো বলেন, চলনবিল আজ শতভাগ বিদ্যুতায়িত এলাকা। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, সুলভ মূল্যে ইন্টারনেট সেবা মিলছে। সবই সম্ভব হয়েছে শেখ হাসিনার তথ্য উপদেষ্টা, ডিজিটাল বাংলাদেশের আর্কিটেক্ট সজিব ইসলাম জয়ের কারণে। নতুন রূপে দুই কিলোমিটার শহর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ হলে সিংড়া পৌরসভা হবে সুরক্ষিত শহর।

অনুষ্ঠানে পানি উন্নয়ন বোর্ড রাজশাহী উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী মো. জহিরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. শফিকুল ইসলাম, সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ওহিদুর রহমান শেখ, সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম এম সামিরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।