ঢাকা, বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২

নতুন করে ২৭১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভূক্ত

প্রকাশ: ২০২২-০৭-০৭ ০৩:১৩:৫৩ || আপডেট: ২০২২-০৭-০৭ ০৩:১৩:৫৩

 

সিএসবি টুয়েন্টিফোর :
নতুন করে আরও দুই হাজার ৭১৬টি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করেছে সরকার। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের আওতায় রয়েছে ২ হাজার ৫১টি। কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের আওতায় আছে ৬৬৫টি।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৬৬৬টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১ হাজার ১২২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১৩৬টি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১০৯টি উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ এবং ১৮টি ডিগ্রি কলেজ রয়েছে।

কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এসএসসি ভোকেশনাল বা দাখিল ভোকেশনাল ৯৭টি, এসএসসি বিজনেস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড টেকনোলজি ২০০টি, ডিপ্লোমা ইন অ্যাগ্রিকালচার দুটি, দাখিল মাদ্রাসা ২৬৪টি, আলিম মাদ্রাসা ৮৫টি, ফাজিল মাদ্রাসা ৬টি ও কামিল মাদ্রাসা ১১টি।

সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ের ৩২ উপজেলা ও সিটি করপোরেশনভুক্ত ২২ থানার একটি প্রতিষ্ঠানও এমপিওভুক্তির যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি। এ ছাড়া কারিগরি শিক্ষার ক্ষেত্রে ২২৩টি এবং মাদ্রাসা শিক্ষার ক্ষেত্রে ২০০টি উপজেলা থেকে একটি প্রতিষ্ঠানও এমপিওভুক্তির অনুমোদনের যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি।

তিনি বলেন, মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ের ১৮টি এবং কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ২১৩টি, মাদ্রাসার ক্ষেত্রে ১৫২টি উপজেলা থেকে এমপিওভুক্তির আবেদন পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও জানান, আবেদন করার পরও এমপিওভুক্তির জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে না পারা উপজেলার সবগুলোয় অন্তত একটি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য বাছাই করা হয়েছে। এক্ষেত্রে মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ, কারিগরি শিক্ষা এবং মাদ্রাসা শিক্ষার যে কোনো একটিকে নেওয়া হয়েছে। প্রতিটি উপজেলায় স্বীকৃতি/স্বীকৃতির সুপারিশ রয়েছে এমন প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বরপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানকে বিবেচনা করা হয়েছে।

আঞ্চলিক অসামঞ্জস্য দূর করতে মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ের ২৯টি, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষার ক্ষেত্রে ১৭টি প্রতিষ্ঠানকে বিবেচনা করা হয়েছে। শিক্ষায় পশ্চাৎপদতা, অনগ্রসরতা বিবেচনায় নিয়ে এমপিওভুক্তির জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে না পারা দশটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য বাছাই করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি বলেন, এসএসসি কবে, সে সিদ্ধান্ত হয়নি। আমরা খোঁজ রাখছি নিয়মিত। এখনো কিছু কিছু এলাকায় শহর থেকে পানি নেমে গেছে। গ্রাম পর্যায়ে এখনো কোথাও কোথাও হয়তো আছে, সেটাও নেমে যাবে। কিন্তু ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কিছু জায়গায়। আমাদের অনেক পরীক্ষার্থী, আমাদের কাছে তথ্যও আসছে… বইপত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা এখন পুরো অ্যাসেস করছি, কত পরীক্ষার্থীকে নতুন করে বই দিতে হবে। আমরা হিসাব করছি, যদি প্রয়োজন হয় তা হলে বইও ছাপিয়ে ফেলব। তাদের হাতে বইগুলো দিয়ে অন্তত ২ সপ্তাহ সময় দিতে হবে। এটা আমাদের টাইমলাইন। কিন্তু এটা কোথায় গিয়ে ঠেকবে এটা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয়।

এর আগে সকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির ঘোষণা দেন।

সবশেষ ২০১৯ সালে ২ হাজার ৬৩৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়। এর আগে ২০১০ সালে ১ হাজার ৬২৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়েছিল।