ঢাকা, বুধবার, ১৮ মে ২০২২

বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে দুই প্রেমিকার অনশন, অত:পর বিয়ে

প্রকাশ: ২০২২-০৪-২১ ২২:১৭:০৩ || আপডেট: ২০২২-০৪-২১ ২২:১৭:০৩

 

আটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলাধীন বলরামপুর ইউনিয়নের লক্ষীদ্বার গ্রামে গতকাল ২০ এপ্রিল এক প্রেমিকের সাথে দুই প্রেমিকার বিয়ে সম্পন্ন হয়।

লক্ষীদ্বার গ্রামের যামিনী চন্দ্রের ছেলে রোহিনী চন্দ্র রনি (২৫) এর সাথে উত্তর বলরামপুর (গাঠিয়া পাড়া) গিরিশ চন্দ্রের মেয়ে ইতি রানি (২০) ও উত্তর লক্ষীদ্বারের টনোকিশোর মেয়ে মমতা রানির প্রেমের মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

তথ্যসুত্রে জানা যায়, ইতি রানির সাথে বিগত তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় পরিণয় ঘটে অবশেষে ৬ মাস আগে মন্দিরে গোপনে বিয়ে করে রনি।

এদিকে মমতা রানির সাথে গোপনে প্রেমের সম্পর্ক চলতে থাকে। গত ১২ তারিখ রাতে মমতা রানির সাথে দেখা করতে গেলে এলাকাবাসী দেখে সন্দেহপূর্বক আটক করে এবং পরে জানা যায় মমতা রানির সাথে প্রায় ৫ মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছে।

এর জের ধরে রনিকে আটক করে রাখে মমতার বাড়ির লোকজন। এদিকে সকালে ইতি রানি খবর পেয়ে রনির বাড়িতে এসে অনশন শুরু করে। আর মমতার বাড়ির লোকজন এই খবর শুনে মমতা ও রনিকে কোর্টে নিয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে এফিটএফিট করিয়ে নিয়ে আসে।

এভাবেই সারাদিন অতিবাহিত হবার পর রাতে বলরামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ্ব মোহাম্মদ দেলয়ার হোসেনের নিকট দুই মেয়ে পক্ষ ও ছেলে পক্ষ সালিশ এর জন্য বসলে চেয়ারম্যান মহোদয় ছেলে মেয়ে কে মজলিসে নিয়ে আসার আহব্বান করেন। এদিকে মমতার বাড়ির লোকজন পুরহিত ডেকে মমতার সাথে রনির বিয়ে দিয়ে দেন।

বিয়ের দুইদিন পরে রনি মমতা কে নিয়ে তার নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর রনির বাবা মা গতকাল রনি সাথে ইতি ও মমতার বিয়ে পারিবারিকভাবে সম্পন্ন করেন।