ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

মুজিববর্ষে পুলিশের উদ্যোগে ৫২০ গৃহহীনকে বাড়ি উপহার কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০২২-০৪-১০ ২৩:২২:৩৫ || আপডেট: ২০২২-০৪-১০ ২৩:২৭:২৭

সিএসবি টুয়েন্টিফোর :
মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ পুলিশের উদ্যোগে দেশের প্রতিটি থানা এলাকায় গৃহহীন পরিবারের জন্য ভূমি ও বাড়ি উপহার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

একই সঙ্গে নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক স্থাপনের মানবিকও উদ্বোধন করেছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

এ সময় তিনি দেশের বিভিন্ন এলাকায় উপকার ভোগীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের অনুভূতি শোনেন।

পুলিশের এই কর্মসূচির আওতায় ৫১৯টি থানা এলাকায় ৫২০টি গৃহ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে ৪০০ গৃহ হস্তান্তর করা হয়।

৪১৫ বর্গফুট আয়তনের দৃষ্টিনন্দন প্রতিটি গৃহ পরিবেশবান্ধব নির্মাণসামগ্রী দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

গৃহহীন পরিবার বাছাইয়ের ক্ষেত্রে বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা, প্রতিবন্ধী ও উপার্জনে অক্ষম, অতিবৃদ্ধ ও পরিবারে উপার্জনক্ষম সদস্য নেই এমন পরিবার অথবা অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশলাইন্স, পীরগঞ্জ থানা ও মাগুরা সদর থানা সরাসরি এই অনুষ্ঠানে যুক্ত আছে। এছাড়া, বাংলাদেশ পুলিশের সব থানা ও পুলিশ লাইন্স অনলাইনে (ওয়ানওয়ে) যুক্ত থেকে অনুষ্ঠানটি উপভোগ করছে।

মুজিববর্ষ উদযাপনের লক্ষ্যে বছরব্যাপী নানা কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছিল পুলিশ। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে সেসব পরিকল্পনা পুরোপুরি বাস্তবায়ন না হওয়ায় কিছু অর্থ বেঁচে যায়। সেই অর্থ দিয়ে গৃহহীনদের জন্য গৃহ নির্মাণ করে প্রধানমন্ত্রীর আবাসন কার্যক্রমে শামিল হয় বাংলাদেশ পুলিশ।

এদিকে, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিটি থানায় স্থাপন করা হয়েছে নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক।

দেশের ৬৫৯টি থানায় একটি বিশেষ কক্ষ নির্মাণ অথবা প্রয়োজনীয় সংস্কারের মাধ্যমে উপযুক্ত পরিবেশে এ ডেস্ক তৈরি করা হয়েছে।

ডেস্ক পরিচালনার জন্য একজন সাব-ইন্সপেক্টরের নেতৃত্বে প্রশিক্ষিত নারী পুলিশ সদস্যদের পদায়ন করা হয়েছে।

ডেস্ক কর্মকর্তা থানায় আগত নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের সমস্যা মনোযোগ সহকারে শুনে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নিশ্চিত করবেন। মুজিববর্ষের শুরু থেকে এ সার্ভিস ডেস্ক পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়।