ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

কোটবাজার থেকে অবৈধ ভাবে গ্যাস বিক্রীর দায়ে আটক-৩

প্রকাশ: ২০২২-০২-০১ ০৭:৪৭:৩৩ || আপডেট: ২০২২-০২-০১ ০৭:৪৭:৩৩

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজারের উখিয়ায় বিশেষ প্রক্রিয়ায় কাভার্ড ভ্যানের ভিতর সিলিন্ডার স্থাপন করে অবৈধ ভাবে গ্যাস বিক্রীর সময় ৩জনকে আটক করেছে র‍্যাব-১৫।

আটককৃতরা হলো মহেশখালী উপজেলার বড় কুলালপাড়া এলাকার মুজিত কান্তি দে ছেলে ঝিন্টু কান্তি দে (৩০), উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের জাফর আলমের ছেলে মোঃ ইসমাঈল (২২) ও চট্টগ্রামের কালামিয়া বাজার এলাকার সফিকুর রহমানের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৫০)কে ধৃত করে।

৩০ জানুয়ারি রাত ৯টার দিকে র‍্যাব-১৫ এর আভিযানিক দল গোপন সূত্রে রত্নাপালং ইউনিয়নের কোর্টবাজার এর দক্ষিণ পাশে কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়ক সংলগ্ন শাহমজিদিয়া ফিলিং স্টেশনের সামনে সরাসরি গাড়ীতে জ্বালানী সরবরাহ করার সময় তাদের আটক করে।

মূলত: তারা দীর্ঘদিন অবৈধ ভাবে গ্যাস সরবরাহ করে তা দেশের বিভিন্ন এলাকায় এবং কারখানায় চড়া মূলে বিক্রি করে আসছে।

র‍্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের অভিযানিক দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে র‍্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে আটককৃতরা পালাতে চেষ্টা করে।

পরে ধৃত ব্যক্তিদের পালানোর কারন জিজ্ঞাসা করলে জানায়, অবৈধভাবে সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে গ্যাস সরবরাহ করে তা কাভার্ড ভ্যানে বহন করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় এবং কারখানায় বিক্রির জন্য তারা স্থানে অবস্থান করছিল।

এ সময় তাদের কাছ থেকে অবৈধ গ্যাস সংযোগে ব্যবহৃত ০১ টি কাভার্ড ভ্যান ও ১১৮ টি গ্যাস সিলিন্ডার (যা কাভার্ড ভ্যানের ভিতরে বিশেষ কায়দায় একটি অপরটির সাথে সংযুক্ত) জব্দ করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ সরাসরি গাড়িতে জ্বালানী সরবরাহ করার পাশাপাশি বিশেষ প্রক্রিয়ায় কভার্ড ভ্যানের ভিতর সিলিন্ডার স্থাপন করে মিটার বার্তীত মূল গ্যাসলাইন থেকে গ্যাস মজুদ করে তা অবৈধভাবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নোয়াখালী, লক্ষীপুরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় এবং যেসব এলাকায় গ্যাস সংযোগ নেই সেসব এলাকার বিভিন্ন কারখানায় চড়া মূল্যে বিক্রি করে আসছে।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে এজাহার মূলে বাংলাদেশ গ্যাস আইনে মামলা রুজু করার জন্য উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয় জানিয়েছেন র‍্যাব-১৫ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সালাম চৌধুরী।