ঢাকা, শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

চকরিয়ার ইউএনও তাবরীজ কর্তৃক সাংবাদিক নির্যাতন

প্রকাশ: ২০২১-১২-২৯ ২৩:২২:৫৪ || আপডেট: ২০২১-১২-২৯ ২৩:৫৬:৫৪

সংবাদদাতা:
ঘুষ গ্রহণের ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ শামসূল তাবরীজ সাংবাদিককে ফোন করে তার অফিসে ডেকে নিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় রশি দিয়ে বেঁধে নির্মমভাবে শারিরীক নির্যাতন চালিয়েছে। এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী আহত সাংবাদিক।

চকরিয়ার কয়েকজন পা চাঁটা দালালের উপস্থিতিতে এরকম জঘন্য অমানবিক অপরাধ সংগঠিত করা হয়েছে।

গুরুতর আহত সাংবাদিক বর্তমানে একটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) রাতে ইউএনও সৈয়দ শামসূল তাবরীজ সরাসরি তার অধীনস্থ অফিস সহকারী, আনসার ও বহিরাগত লোকজনসহ অজ্ঞাত ২০-২৫ জন ক্যাডার দিয়ে সাংবাদিক ছালেম বিন নুরকে ডেকে নিয়ে শারিরীক নির্যাতন চালিয়েছে।

শুধু তাই নয়, ইউএনও অফিসে নিয়ে তাকে বিবস্ত্র করে অমানবিক শারীরিক নির্যাতনের পর জোরর্পুবক খালি জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এসময় ইউএনও সাংবাদিক সালেমকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকীসহ পত্রিকার ডিকলারেশন বাতিলের হুমকীও দিয়েছেন বলে জানান নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক।

বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিক সালেম ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান তারা।

এবিষয়ে ইউএনও’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ব্যস্ত আছেন, পরে ফোন করবেন বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন।