ঢাকা, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

ক্যাম্পে অস্ত্রসহ ৭ রোহিঙ্গা অপহরণকারী রোহিঙ্গা আটক!

প্রকাশ: ২০২১-১২-১৯ ২৩:১১:০৮ || আপডেট: ২০২১-১২-২০ ০৮:২৭:৩৪

ইমরান আল মাহমুদ:
কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে তিনজন রোহিঙ্গা শরণার্থীকে অপহরণ করার দায়ে ওয়ান শুটারগান সহ ৭জনকে আটক করেছে ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন(এপিবিএন)।

রবিবার(১৯ ডিসেম্বর) গভীররাতে ক্যাম্প-৯ এ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ৮ এপিবিএন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(মিডিয়া) মো. কামরান হোসেন।

আটক সাতজনের সবাই বিভিন্ন ক্যাম্পের আশ্রিত রোহিঙ্গা। তারা হলেন, ক্যাম্প-৯ এর সি-১১ ব্লকের মো. শফিকের ছেলে মো. সলিম,সি-১০ ব্লকের হাসান রশিদের ছেলে মো. ওসমান(২২),সি-১৯ ব্লকের মো. হোসেনের ছেলে সৈয়দুল আমিন(৩৫),সি-১৪ ব্লকের জালাল আহাম্মদের ছেলে নুরুল আমিন(৪২),সি-১৮ ব্লকের মো. হাসেমের ছেলে বশির আহম্মদ(৩৪),সি-২০ ব্লকের মো. ওয়ারিসের ছেলে মো. ইলিয়াস(৫৬) ও সি-১৭ ব্লকের আলী হোসেনের ছেলে দিল মোহাম্মদ (৫২)।

অপহৃত তিনজনের বরাত দিয়ে ৮ এপিবিএন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরান হোসেন জানান,আটককৃতরা ১৮ ডিসেম্বর রাত ৯টায় ক্যাম্প-১০ থেকে তিনজনকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণ না দিলে হত্যার হুমকি প্রদান করে অপহরণকারীরা।

অপহরণের সংবাদের ভিত্তিতে ৮ এপিবিএন কমান্ডিং অফিসার (পুলিশ সুপার) মোহাম্মদ সিহাব কায়সার খানের নির্দেশে অপহৃতদের উদ্ধারে তৎপরতা শুরু করে পানবাজার পুলিশ ক্যাম্পের একটি চৌকস পুলিশ দল।
অভিযান দলটি বিভিন্ন উৎস থেকে প্রাপ্ত তথ্য যাচাই-বাছাই করে অপহৃতদের উদ্ধারে সন্দেহজনক স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। পরে ক্যাম্প -৯ এর সি-১৫ ব্লকে অভিযান চালিয়ে একটি ওয়ানশুটার গানসহ সাতজন অপহরণকারীকে গ্রেফতার ও অপহৃত ৩ জন ব্যক্তিকে উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

৮ এপিবিএন এর কমান্ডিং অফিসার (পুলিশ সুপার) মোহাম্মদ সিহাব কায়সার খান জানান, জিরো টলারেন্স’ নীতিতে ক্যাম্প এলাকায় দুষ্কৃতিকারীদের দমন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, মাদক উদ্ধার, অপহরণ ও চোরাকারবারি বন্ধ করাসহ সকল প্রকার অপরাধ দমনে ৮ এপিবিএন পুলিশ বদ্ধপরিকর। রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে এপিবিএন পুলিশ সার্বিক আইনি কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে বলে জানান তিনি।

অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অস্ত্র রাখা ও অপহরণের দায়ে উখিয়া থানায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন বলে জানা যায়।