ঢাকা, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১

ধর্ম নিয়ে কটূক্তি: জবি শিক্ষার্থী তিথি’র বিচার আরম্ভ

প্রকাশ: ২০২১-১১-০৪ ১৬:১৯:০৩ || আপডেট: ২০২১-১১-০৪ ১৬:১৯:০৩

বার্তা পরিবেশকঃ

ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী তিথি সরকারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। একই সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে এ মামলার বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হলো।

বৃহস্পতিবার (৪ই নভেম্বর) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সাম জগলুল হোসেনের আদালত আসামির উপস্থিতিতে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন। এরই সঙ্গে মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১৮ই নভেম্বর দিন ধার্য্য করেন আদালত।

সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের পেশকার শামীম আল মামুন তথ্যটি নিশ্চিত করে বলেন, এদিন মামলার অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য্য ছিল। তিথি সরকার ও তার স্বামী শিপলু সরকারের আইনজীবী মামলার দায় হতে আসামিদের অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে তার বিরোধিতা করা হয়। পরে শুনানি শেষে তিথি সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন এবং তিথি সরকারের স্বামী শিপলু মল্লিককে মামলার দায় হতে অব্যাহতি দেন আদালত।

গত বছরের ২ নভেম্বর পল্টন থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করা হয়। এরপর চলতি বছরের ১৯ মে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে উপ-পরিদর্শক মেহেদী হাসান তাদের দুইজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ইসলাম ধর্ম নিয়ে ফেসবুক ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিরূপ মন্তব্য করে আসছিলেন তিথি সরকার। পরে ধর্ম অবমাননার অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ছাত্রসংগঠন ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা তিথি সরকারের বহিষ্কার দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত বছরের ২৩’শে অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তিথি সরকারকে সাময়িক বহিষ্কার করে। এরপর তার পরিবার থেকে অভিযোগ আসে তিথি নিখোঁজ।

গত বছরের ১১ই নভেম্বর নরসিংদীর মাধবদীর পাঁচদোনায় স্বামীর এক দূরসম্পর্কীয় আত্মীয়ের বাড়ি থেকে তিথি সরকারকে এবং তার স্বামী শিপলু মল্লিককে রাজধানীর কাপ্তান বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।