ঢাকা, সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

খুনিয়াপালং এলাকায় জমি দখলে সশস্ত্র হামলা, আটক ২

প্রকাশ: ২০২১-০৮-৩১ ০১:৫২:০৫ || আপডেট: ২০২১-০৮-৩১ ০১:৫২:০৫

রামু প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের রামুর খুনিয়াপালং ইউনিয়নের গোয়ালিয়াপালং এলাকায় অস্ত্র ও লাটি-সোটা নিয়ে জমি চাষাবাদকালে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় ৪ জন আহত হয়েছে।

সোমবার (৩০ আগস্ট) সকাল ১১ টায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ দুজনকে আটক করেছে।

আটককৃতরা হলো-ওই এলাকার ওসমান গনি সিকদারের ছেলে রাশেদুজ্জামান ডালিম (৩৫) জাফর আলমের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৫)।

এ ঘটনায় রামু থানায় লিখিত অভিযোগ করেন রাজারকুল ইউনিয়নের কবির আহমদ সিকদারের ছেলে সুলতান মাহমুদ সেলিম।

তিনি জানান-তার বাড়ি থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে গোয়ালিয়াপালং এলাকায় উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত তার আড়াই একর কৃষি জমি রয়েছে। দূরত্বের এ সুযোগে দীর্ঘদিন জমি জবর-দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছে ওই এলাকার বাসিন্দা এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু বিএনপি নেতা শাহেদুজ্জামান বাহাদুর। সোমবার সকালে তিনি চাষাবাদের শ্রমিকদের দিয়ে জমি চাষাবাদ শুরু করেন।

এসময় বাহাদুর লম্বা বন্দুক হাতে নিয়ে এবং লাটি-সোটা নিয়ে আসা আরো অর্ধ শতাধিক লোকজন চাষাবাদে নিয়োজিত শ্রমিকদের উপর হামলা শুরু করে। এতে হামলার শিকার হন জমির মালিক সুলতান মাহমুদ সেলিম, চাষাবাদে নিয়োজিত শ্রমিক আবুল কাশেম, ওবাইদুল হক ও জাগির হোসেন সহ আরো অনেকে। আহতদের চিকিৎসার জন্য রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে হামলার খবর পেয়ে রামু থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল ইসলামের নেতেৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলায় জড়িত রাশেদুজ্জামান ডালিম ও সাইফুল ইসলামকে আটক করেন। তিনি জানিয়েছেন-শাহেদুজ্জামান বাহাদুরের নেতৃত্বে ওই এলাকার জমি জবর-দখলের আরো অভিযোগ রয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত অন্যান্যদের আটকের চেষ্টা চলছে। আইনশৃঙ্খলার অবনতি হওয়ার মতো ঘটনা সংগঠিত হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।