ঢাকা, শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১

চাকার ভিতর লুকায়িত প্রায় ৯০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক-১

প্রকাশ: ২০২১-০৮-২৭ ১৭:৩২:১০ || আপডেট: ২০২১-০৮-২৭ ১৭:৩২:১০

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমে ৮৯ হাজার ৬শ ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় একটি প্রাইভেটকার (চট্টমেট্টো-ঘ-১২-৪৭৬১) সহ আব্দুর রহিম (৫৭) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তি কক্সবাজারের ইসলামপুর ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ছৈয়দ আহমদের ছেলে।

শুক্রবার (২৭ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ৭টায় ঘুমধুম ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড বাংলাদেশ-মিয়ানমার মৈত্রী সড়ক থেকে বেতবুনিয়া বাজারে যাওয়ার পথে প্রাইভেট কার সহ তাকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন’র সার্বিক তত্বাবধানে ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ দেলোয়ার হোসেন এর নেতৃত্বে এস আই আল আমিন ও এএসআই মোঃ অলি উল্লাহ সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে পরিচালিত অভিযানে বাংলাদেশ-মিয়ানমার মৈত্রী সড়কের বেতবনিয়া বাজারের প্রবেশমুখে একটি প্রাইভেট কার সন্দেহজনক থামিয়ে তল্লাশীর সময় কার গাড়ীর স্পেয়ার চাকার ভিতর লুকায়িত ৮৯ হাজার ৬০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এসময় ইয়াবা বহন কাজে ব্যবহৃত ১০ লাখ টাকা মূল্যের চট্ট-মেট্টো-গ-১২-৪৭৬১ নাম্বারের প্রাইভেট কারটি জব্দ করা হয়।

এ বিষয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন জানান, আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশের মাদক বিরোধী ধারাবাহিক অভিযান চলমান থাকবে।

উল্লেখ্য, চলিত আগষ্ট মাসে নাইক্ষ্যংছড়ি পুলিশের অভিযানে সাড়ে ৪ লাখেরও বেশি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১৩ কোটি টাকা। এ সময় আটক করা হয় অর্ধডজন পাচারকারীকে। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করে বান্দরবান কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।