ঢাকা, রোববার, ২৯ মে ২০২২

ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষার মূলধারায় আনতে চাই : স্কাস

প্রকাশ: ২০২১-০৩-০৩ ২১:২০:১২ || আপডেট: ২০২১-০৩-০৩ ২১:২০:১২

 নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজার জেলার ১২ হাজার ৩ শত শিশুকে দ্বিতীয় বারের মত শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ দিচ্ছে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস)’। 

কক্সবাজার পৌরসভা, কক্সবাজার সদর, রামু ও চকরিয়া উপজেলায় স্কাসের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ এবং মানসম্মত পাঠদান নিশ্চিত করে শিক্ষার মূল ধারায় সম্পৃক্ত করতে কাজ চালিয় যাচ্ছে স্কাস।

৩ মার্চ (বুধবার) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে স্কাস এর উদ্যোগে আয়োজিত ‘আউট অব স্কুল এডুকেশন প্রোগ্রাম বিষয়ক অবহিতকরণ কর্মশালা’য় এসব তথ্য জানানো হয়।

স্কাস চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান। এসময় তিনি বলেন, আমার বিশ্বাস সরকার ও স্কাসের যৌথ উদ্যোগে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এ অঞ্চলের শিশুরা পুনরায় শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পাবে। জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট সকলে ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষার মূল স্রোতধারায় ফিরিয়ে আনা সহযোগিতা করতে হবে। স্কাসের সকল কার্যক্রমে আমারও সহযোগীতা থাকবে সব সময়।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর কক্সবাজার সহকারি পরিচালক মো. আব্দুল হামিদ। তিনি তার বক্তব্যে প্রকল্প বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার প্রেসক্লাব ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের বলেন, জেলার শিক্ষার হার নিয়ে কথা বলতে আমাদের লজ্জ্বা হয়। এখনও নানা কারণে শিশুরা ঝরে পড়ছে। স্কাসের এই কর্মসূচি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ ধরনের প্রোগ্রামগুলো বাস্তবায়ন করা অনেক চ্যালেঞ্জিং এবং কঠিন।

সভাপতির বক্তব্যে স্কাস চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা বলেন,  আপনাদের সকলকে নিয়েই ঝরে পড়া ও বিদ্যালয়ে ভর্তি না হওয়া ৮ থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুদের নিয়ে কাজ করতে চাই। জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সকলের সাথে সমন্বয় করে, এ কর্মসূচির বাস্তবায়ন করতে হবে। আপনারা আমাদের কাজগুলো মনিটরিং করুন।

কর্মশালায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্যানেল মেয়র শাহেনা আকতার পাখি, কাউন্সিলর রাজবিহারী দাশ, জাহেদা আকতার, আক্তার কামাল প্রমুখ কর্মশালায় সম্মাননার টাকা নিজে না নিয়ে চারজন ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য অনুদান হিসেবে স্কাস চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমার হাতে তুলে দেন মেয়র মুজিবুর রহমান ও কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী।