ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২

উখিয়ায় ডেকোরেশন শ্রমিককে জবাই করে হত্যা, পরিচয় মেলেনি ঘাতকের

প্রকাশ: ২০২১-০১-১০ ১৪:৫৪:৪৬ || আপডেট: ২০২১-০১-১০ ১৪:৫৪:৪৬

পলাশ বড়ুয়া ॥
কক্সবাজারের উখিয়ায় কোটবাজারস্থ মুক্তা ডেকোরেশন দোকানের এক শিশু শ্রমিককে গলা কেটে হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ঘাতক রোহিঙ্গা কিশোর আয়াছ বলে চাওর হলেও এ রিপোর্ট লেখাকালীন পর্যন্ত ঘাতকের বিস্তারিত পরিচয় মেলেনি।

নিহত শিশু শ্রমিকের নাম মো: ফোরকান প্রকাশ কালু (১৪)। সে রতœাপালং ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের তেলীপাড়া গ্রামের বশির আহমদের ছেলে।

খবর পেয়ে রবিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশ। পরে দুপুর ১২ দিকে কোটবাজার দক্ষিণ স্টেশনের এস. আলম প্লাজার মুক্তা ডেকোরেশন থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ফরেনসিক টিম।

নিহতের পিতা বশির বলেন, গত ২০/২৫ দিন যাবত শাহ আলমের ডেকোরেশনের দোকানে কাজ করছিল তার ছেলে। কদিন ধরে বাড়িতে যাচ্ছে না তার ছেলে। টাকা পয়সাও দেয়নি। হঠাৎ আজ সকাল দুইজন ছেলে গিয়ে ছেলের মৃত্যুর খবর শুনে বাকরুদ্ধ হয়ে গেছে পরিবারের সবাই। তিনি বলেন, কে বা কারা কেন আমার ছেলেকে হত্যা করেছে আমি জানি না। আমি ছেলের খুনি কে শাহ আলম বলতে পারবে। আমি খুনির বিচার চাই।

এ বিষয়ে দোকান মালিক শাহ আলম বলেন, নিহত ফোরকান গত ৪দিন আগে আয়াছ নামে এক ছেলেকে কাজ করার জন্য সাথে নিয়ে আসে। আয়াছ এর পরিচয় আমিও জানিনা।
গতরাতে আমি তাদের দোকানে রেখে গেছি। সকালে এসে কালুর মরদেহ দেখতে পায়। আয়াজ সে থেকে পলাতক।

বিষয়টি নিশ্চিত করে উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) গাজী সালাউদ্দিন বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। এছাড়াও পুলিশের বিশেষ ইউনিট সিআইডির একটি দল ঘটনাস্থল আসার কথা জানান তিনি।