ঢাকা, রোববার, ২৬ জুন ২০২২

কলাতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে বাধা, সংঘর্ষ

প্রকাশ: ২০২০-১০-১৭ ২২:২৭:৪২ || আপডেট: ২০২০-১০-১৭ ২২:২৭:৪২

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
কক্সবাজারে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুসারে কলাতলীর সুগন্ধা পয়েন্টে ৫২টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়ে প্রবল বাধার মুখে পড়েছে স্থানীয় প্রশাসন। এসময় পুলিশ ও অবৈধ দখলদারদের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছে সাংবাদিকসহ অন্তত ১৬ জন।

শনিবার দুপুরে দ্বিতীয় দফায় এসব স্থাপনা উচ্ছেদে যায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ও কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। এসময় অবৈধ দখলদার, স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বহিরাগত কিছু লোকজন একজোট হয়ে স্থাপনাগুলো সামনে অবস্থান নেয় এবং বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। প্রশাসনের তরফ থেকে হ্যান্ডমাইকে বারবার সতর্ক ও দোকানের মালামাল সরিয়ে ফেলার কথা বলা হলেও অবৈধ দখলদাররা তা শুনেনি। এক পর্যায়ে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে প্রশাসন উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করলে উভয়ের পক্ষে সংঘর্ষ হয়। পুলিশের উপর উপর্যুপুরি ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এসময় পুলিশও পাল্টা টিয়ারশেল এবং রাবাল বুলেট নিক্ষেপ করে। এতে দুই সাংবাদিক নুরুল করিম রাসেল ও ইকবাল বাহার চৌধুরী আহত হয়। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে, এই সংঘর্ষে তাদের অন্তত ১৪ জন আহত হয়েছেন। তাদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবারও অবৈধ দখলদারদের বাধার মুখে উচ্ছেদ অভিযান চালাতে ব্যর্থ হয় জেলা প্রশাসন ও কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের যৌথ টিম। ওইদিন দোকানের মালামাল সরিয়ে নেয়ার জন্য দখলদারদের শনিবার সকাল ১০ টা পযন্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়েছিল। এর প্রেক্ষিতে আজ আবারো উচ্ছেদ অভিযান যায় জেলা প্রশাসন ও কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, সুগন্ধা পয়েন্টের ওই স্থানে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বিএনপি কতিপয় নেতা কর্মী মিলে এসব অবৈধ স্থাপনা গড়ে তুলেছিল।