ঢাকা, বুধবার, ২৫ মে ২০২২

উখিয়ায় শিক্ষক (অব:) পুলিন বিহারী বড়ুয়াকে সম্মাননা প্রদান

প্রকাশ: ২০২০-১০-১০ ০০:৫৬:১৪ || আপডেট: ২০২০-১০-১০ ০৮:৫৫:৫৩

সিএসবি২৪ রিপোর্ট:
প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষার প্রসার ও সমাজ সংস্কারে অনন্য ভূমিকা রাখায় কক্সবাজারের উখিয়ায় শিক্ষক (অব:) পুলিন বড়ুয়াকে গুণীজন সম্মাননা প্রদান করেছেন উপজেলার দুই বৌদ্ধ সংগঠন।

৯ অক্টোবর (শুক্রবার) বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে রত্নাপালং নিজ বাসভবনে গিয়ে গুণী এই শিক্ষককে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

জানা গেছে, প্রবীণ শিক্ষক (অব:) পুলিন বিহারী বড়ুয়া কর্মময় জীবনে পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতার পাশাপাশি নিজস্ব ভূমি ও অর্থ সহায়তায় পাশ্ববর্তী হলদিয়াপালং ইউনিয়নে রুমখাঁপালং উচ্চ বিদ্যালয় এবং রুমখাঁপালং হাতিরঘোনা সাইরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন।

এছাড়াও উখিয়ার বৌদ্ধ সমাজ সংস্কার, কোটবাজারস্থ বৌদ্ধ মহাশ্মশান রক্ষা, মধ্যরত্না রত্নাঙ্কুর বৌদ্ধ নির্মাণকাজসহ বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানে সহায়তা করে অনন্য ভুমিকা রেখে যাচ্ছেন।

শিক্ষিকা প্রীতি বড়ুয়ার সাথে সংসার জীবনেও তিনি হয়েছেন আলোকিত একজন মানুষ। তিন সন্তানদের মধ্যে ডাঃ উত্তম কুমার বড়ুয়া, এম. বি. বি.এস (বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে কর্মরত)। বড় মেয়ে মৈত্রী বড়ুয়া বঙ্গমাতা সরকারি মহিলা কলেজের প্রভাষক। ছোট মেয়ে পাপড়ি বড়ুয়াও স্বাস্থ্য সহকারী হিসেবে কর্মরত।

সর্বোপরি গুণী এবং প্রচারবিমুখ, নিভৃতচারী, স্বপ্নবিলাসী, মিষ্টভাষী, উদারপ্রাণ, সাদা মনের এই মানুষটির জীবদ্দশায় সম্মাননা প্রদানের উদ্যোগ নেন ‘উখিয়া উপজেলা সার্বজনীন বৌদ্ধ সমাজ উন্নয়ন ও বিহার সুরক্ষা কমিটি’ এবং বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতি (যুব) উখিয়া শাখা।

এ সময় শিক্ষক পুলিন বিহারি বড়ুয়া তাঁর অতীত স্মৃতিময় দিনের সহযোদ্ধাদের স্মরণ করেন। আবেগ আপ্লূত কণ্ঠে বলেন আজ আমি ক্লান্ত। এমন দিনে এই সম্মান আমার জন্য পরম পাওয়া। সবার প্রতি আশীর্বাদ জানিয়ে সমাজের কল্যাণমূলক অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান তিনি। পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন ডাঃ উত্তম কুমার বড়ুয়া।

সম্মাননা প্রদানকালে উপস্থিত থেকে শিক্ষক পুলিন বিহারীর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন উখিয়া উপজেলা সার্বজনীন বৌদ্ধ সমাজ উন্নয়ন ও বিহার সুরক্ষা কমিটির সভাপতি প্রভাষক প্লাবন বড়ুয়া, বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতি যুব’র কক্সবাজার জেলা সভাপতি এড. অনিল কান্তি বড়ুয়া, শিক্ষক অমৃত কুমার বড়ুয়া, শিক্ষক মেধু কুমার বড়ুয়া, সুজন বড়ুয়া, দীনেশ বড়ুয়া, মধু বড়ুয়া। এছাড়াও শতাধিক উপাসক উপস্থিত ছিলেন।

সম্মাননা পাঠ করেন শিক্ষক হিমু বড়ুয়া ও সঞ্জয় বড়ুয়া।