ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২

দ্বায়িত্বহীনতা

প্রকাশ: ২০২০-০৮-৩০ ০১:২৭:২৩ || আপডেট: ২০২০-০৮-৩০ ০৮:৪৯:৫৩

পলাশ বড়ুয়া:
২৯ আগস্ট রাত ১১টার দিকে পূর্বরত্নায় গতিবিধি সন্দেহ হলে এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করে স্থানীয়রা।

ওই যুবক নিজেকে কুতুপালং ক্যাম্প-৮ এর আব্দুল লতিফের ছেলে জসিম উদ্দিন বলে পরিচয় দেয়।

বিষয়টি জানাতে ফোন করা হলে রিসিভ করেনি
উখিয়া থানার ওসি।

ডিউটি অফিসার বলে থানায় জনবল সংকট। তাই চৌকিদারের মাধ্যমে পাঠিয়ে দিন।

রত্নাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ফোনে তাড়াহুড়ো করে তিনি বলেন, এতো রাতে চৌকিদার কয় পাবো৷ ডিউটি পুলিশ না আসলে নিজেরা গিয়ে থানায় পৌছে দিতে।

বর্তমানে স্থানীয় দোকানদার মো: সেলিমের হেফাজতে আছে ওই যুবক। এটা উখিয়া থানা পুলিশ, জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্বহীনতার পরিচয় নয় কি?

অথচ বছর খানেক আগে এই এলাকায় কুয়েত প্রবাসী রোকেন বড়ুয়ার বাড়িতে একই পরিবারের নারী-শিশুসহ ৪জনকে জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। যার কোন হদিস মেলেনি এখনো!