ঢাকা, শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২

চকরিয়ায় ‘গরু চোর’ অপবাদে মা-মেয়ের উপর বর্বরতা

প্রকাশ: ২০২০-০৮-২৩ ১০:৫৬:২৫ || আপডেট: ২০২০-০৮-২৩ ১৩:৩৫:০৪

সিএসবি২৪ ডেস্ক:
কক্সবাজারের চকরিয়ায় মা ও মেয়েকে ‘গরু চোর’ অপবাদ দিয়ে পেটানোর অভিযোগ চেয়ারম্যানেরদ বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, মা-মেয়েকে রশি দিয়ে বেঁধে প্রকাশ্যে সড়কে ঘোরানো হয়েছে। গত শুক্রবার দুপুরে হারবাং পহরচাঁদা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের পরে অসুস্থ হয়ে পড়লে পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

গতকাল শনিবার রাতে হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম কর্তৃক ন্যাক্কারজনক এ ঘটনার ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত হলে সর্বত্রে নিন্দার ঝড় উঠে।

হারবাংয়ের চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামের সাথে যোগাযোহের চেস্টা করেও মোবাইলে সংযোগ না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

স্যোসাল মিডিয়ায় এমরান ফারুক অনিক নামে একজন লিখেছেন, দেশের প্রচলিত আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এহেন অমানবিক নির্যাতন সভ্য বাংলাদেশে হতে পারে না।

চকরিয়া থানার হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম জানান, স্থানীয় এক ব্যক্তির গরু চুরির ঘটনায় পাঁচজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। অভিযুক্তদের মধ্যে মা-মেয়েসহ চারজনের বাড়ি পটিয়ার শান্তিরহাটে। অপরজনের বাড়ি পেকুয়ার লালব্রিজ এলাকায়।

মা-মেয়েকে কারা পিটিয়েছে- এমন প্রশ্নে আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘গত শুক্রবার মা-মেয়েকে পেটানোর বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। খবর পেয়ে পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে যায় তখন সেখানে প্রায় দুই শতাধিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সেখান থেকে তাদেরকে আমাদের হেফাজতে নিয়ে আসাটাই প্রাধান্য দিয়েছি। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করেছি।’

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘ওই মা ও মেয়ের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা করা হচ্ছে। ভুক্তভোগী কেউ যদি অভিযোগ করে তাহলে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ সূত্র : আমাদের সময়।