ঢাকা, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও জেএসসি পরীক্ষা বাতিলের চিন্তা

প্রকাশ: ২০২০-০৮-১১ ১৭:০২:৫৭ || আপডেট: ২০২০-০৮-১১ ১৭:০২:৫৭

সিএসবি২৪ ডেস্ক:
করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরের পঞ্চম শ্রেণির প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী এবং অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা বাতিলের চিন্তাভাবনা করছে সরকারের নীতিনির্ধারক মহল।

ইতোমধ্যে বিষয়টি নিয়ে নীতিনির্ধারক মহলে আলোচনাও শুরু হয়েছে। বিকল্প হিসেবে কেবল স্কুলপর্যায়ে এ পরীক্ষা নেওয়ার চিন্তা-ভাবনাও হচ্ছে।

এ বছরের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা না নেওয়ার জন্য সরকারের কাছে শিগগির সারসংক্ষেপ হিসেবে প্রস্তাব পাঠাবেন বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষাসচিব আকরাম আল হোসেন। তাদের এ প্রস্তাব তৈরি হয়েছে, আগামী রোববার বা সোমবার সেটি পাঠানো হবে।

সচিব আরও জানান, এখনো পরীক্ষা বাতিলের কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে তারা বাংলাদেশ পরীক্ষা উন্নয়ন ইউনিটের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েছেন। নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে একটি সারসংক্ষেপ তৈরি করে তারা সরকারের কাছে সেটি পাঠাবেন। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউসের সঙ্গে এ ব্যাপারে তাদের একটি আলোচনাও হয়েছে। এ ছাড়া জেএসসি-জেএসডি পরীক্ষা নিয়েও আলোচনা হয় বৈঠকে। জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার বিষয়ে প্রস্তাব দেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

গত ঈদের আগে বাংলাদেশ পরীক্ষা উন্নয়ন ইউনিট অষ্টম শ্রেণি শেষে অনুষ্ঠিত জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা নিয়ে ছয়টি বিকল্প প্রস্তাব দিয়েছে। প্রস্তাবে শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যসূচি সংকোচন এবং বিষয় কমিয়ে আগামী ডিসেম্বরে পরীক্ষা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। আর করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে পরীক্ষা ছাড়াই নবম শ্রেণিতে উঠবে শিক্ষার্থীরা। এসব প্রস্তাব নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আলোচনা চলছে।

দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে সাধারণ ছুটি বাড়িয়ে আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে। ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষাও নেওয়া যায়নি।