ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২

রাত পোহালেই নাইক্ষ্যংছড়ি তিন ইউপি’র ভোট গ্রহণ শুরু

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৩ ১৭:২৩:৩৮ || আপডেট: ২০১৯-১০-১৩ ১৭:২৩:৪২

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

রাত পোহালেই নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তিন ইউনিয়ন পরিষদে সাধারণ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হবে। এজন্য রোববার তিনটি ইউনিয়নের ২৮টি কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম। এছাড়া ঘুমধুম ইউনিয়নে রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও বহিরাগত ঠেকাতে ৬টিসহ মোট ১৪টি তল্লাসী চৌকি বসানো হয়েছে।

এর আগে রবিবার সকাল থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে তিন ইউনিয়নের ২৮টি কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসারদের কাছে ব্যালেট পেপার, ৯৪ বুথের জন্য অমোচনীয় কালি, ভোটার লিস্ট ও ব্যানারসহ নির্বাচনি সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের মোট ভোটারের সংখ্যা ১১হাজার ১২৩ভোট। যার মধ্যে পুরুষ ৫হাজার ৬৫৬ ও নারী ভোটার ৫হাজার ৪৬৭জন। এ ইউনিয়নে ৯টি কেন্দ্রে বুথের সংখ্যা ৪০। এর মধ্যে ৪টি অস্থায়ী। সোনাইছড়ি ইউনিয়নে মোট ভোটারের সংখ্যা ৩হাজার ৪৯৮। ইউনিয়নে ৯কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্টিত হবে। এবং ঘুমধুম ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৯হাজার ৩০১। ইউনিয়নটির ৯ টি কেন্দ্রে বুথের সংখ্যা ৩৪ টি।

এদিকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তিন ইউনিয়নে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নে একজন জুডিসিয়ালসহ মোট ৪জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। সোনাইছড়ি ও ঘুমধুম ইউনিয়নে ৩জন করে মোট ৬জন ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়োজিত থাকবেন। ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বিজিবির ৬প্লাটুন, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার বাহিনীর ৩৯২জন সদস্য মোতায়েন থাকবে।

নির্বাচনে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের তসলিম ইকবাল চৌধুরীর সঙ্গে আনারস প্রতিক নিয়ে লড়ছেন যুবলীগ নেতা নুরুল আবছার ইমন। সোনাইছড়ি ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের এ্যানিং মার্মার সাথে লড়ছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি বাহান মার্মা। অন্যদিকে ঘুমধুম ইউনিয়নে সরকার দলীয় নৌকা প্রতিকের সঙ্গে ঘোড়া প্রতিক নিয়ে লড়ছেন বিএনপি নেতা রশিদ আহমদ। এছাড়াও মৌ: ছালেহ আহমদ লড়ছেন আনারস প্রতিক নিয়ে।

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রির্টানিং অফিসার আবু জাফর ছালেহ জানান, পুরো নির্বাচনী এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ ও আনসার, ভিডিপি থাকবে। প্রতি ইউনিয়নে ২প্লাটুন করে বিজিবি ও তিন ইউনিয়নে ৬প্লাটুন র‌্যাব মোতায়েন থাকবে।