ঢাকা, শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

টেকনাফ ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১৫ ১৬:১৫:১০ || আপডেট: ২০১৯-০৯-১৫ ১৬:১৫:১৫

সিএসবি ২৪ ডটকম ॥ কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হাবিব উল্লাহ নামের এক রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য।

গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নয়াপাড়া মোচনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হাবিব উল্লাহ উপজেলার মোচনী ক্যাম্পের আলী আহমদের ছেলে। আহতরা হলেন-পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সুজিত দে, এসআই মশিউর ও কনস্টেবল নাজিম।

পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে জাদিমুরা শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে ডাকাতের প্রস্তুতির খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা গুলি করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক সময় ডাকাতরা পালিয়ে গেলেও হাবিব উল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাত সাড়ে ১২টায় নয়াপাড়া মোচনী ক্যাম্পের পাশের পাহাড়ে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধারে যায়। সেখানে ডাকাত দল আবারও পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। এতে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় তিন পুলিশ সদস্য এবং ডাকাত হাবিব উল্লাহ গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে হাবিব উল্লাহকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। লাশটি সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ঘটনাস্থল থেকে দুটি দেশীয় বন্দুক এবং ১০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত হাবিব উল্লাহ একজন চিহ্নিত ডাকাত। তার বিরুদ্ধে ছয়টির বেশি মামলা রয়েছে।