ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনা

প্রকাশ: ২০১৮-১২-৩০ ১৭:২৪:২৩ || আপডেট: ২০১৮-১২-৩০ ১৭:২৪:২৩

 

অনলাইন ডেস্ক: বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া সারা দেশে শান্তিপূর্ণভাবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। আজ রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ ভোট অনুষ্ঠিত হয়। ভোটগ্রহণ শেষে এখন চলছে গণনা।

ভোট গ্রহণ শুরুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন একাধিক প্রার্থী। বিএনপি-জামায়াত-ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত একাধিক প্রার্থীসহ স্বতন্ত্র প্রার্থীও বিভিন্ন অভিযোগ তুলে একে একে নির্বাচন বর্জন করেছেন।

দেশের বিভিন্ন স্থানে গুলি, সংঘর্ষ, ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ বেশ কিছু ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। ভোটগ্রহণ শেষে সারা দেশে ১২ জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এর বাইরে সারা দেশে সুষ্ঠু পরিবেশে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। ভোটগ্রহণ নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বিদেশি পর্যবেক্ষকরা।

একাদশ জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের মধ্যে একটিতে আজ ভোট হয়নি। বিএনপি মনোনীত প্রার্থী টি আই এম ফজলে রাব্বী চৌধুরীর মৃত্যুতে গাইবান্ধা-৩ আসনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৭ জানুয়ারি। বাকি ২৯৯টি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে। সারা দেশে এবার মোট ভোটার রয়েছেন ১০ কোটি ৪২ লাখ।

আদালতের নির্দেশে প্রার্থী যোগ-বিয়োগ শেষে গত শুক্রবার নির্বাচন কমিশন (ইসি) ২৯৯ আসনের চূড়ান্ত প্রতিদ্বন্দ্বীর যে তালিকা করেছে, তাতে দেখা যায়, মহাজোটের প্রধান শরিক আওয়ামী লীগ লড়ছে ২৬০টি আসনে। দলটি শরিকদের সঙ্গে নৌকা নিয়ে লড়ছে ২৭২টি আসনে। বাকি আসনে শরিকেরা নিজেদের প্রতীক নিয়ে লড়ছে। মহাজোটের অংশ হলেও জাতীয় পার্টি লড়ছে ১৭৫টি আসনে।

বিএনপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট লড়ছে ২৮৪টি আসনে। ১৬টি আসনে তাদের কোনো প্রার্থী নেই। তবে শেষ মুহূর্তে এসে তারা এসব আসনের কয়েকটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সমর্থন দিয়েছে। এই জোটের বিএনপি লড়ছে ২৫৮টি আসনে। তবে এই তালিকায় অনিবন্ধিত জামায়াতে ইসলামী ও নাগরিক ঐক্যের প্রার্থীরাও আছেন। দলটি শরিকদের সঙ্গে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে লড়ছে ২৮৩টি আসনে। এই জোটের এলডিপির চেয়ারম্যান অলি আহমেদ চট্টগ্রাম-১৪ আসনে লড়ছেন নিজস্ব ছাতা প্রতীক নিয়ে।