ঢাকা, রোববার, ২৬ জুন ২০২২

ঘুমধুম পাহাড় ধসে এক রোহিঙ্গার মৃত্যু

প্রকাশ: ২০১৮-১২-০৯ ২০:০৬:২৩ || আপডেট: ২০১৮-১২-০৯ ২০:০৬:২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের কুচুবনিয়া এলাকায় পাহাড় ধসে নুরুল কাশেম (২৫) নামে এক রোহিঙ্গা শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো একজন।

শনিবার গভীর রাতে ঘুমধুম ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের কচুবনিয়াপাড়া এলাকায় মাটি কাটার সময় পাহাড় ধ্বসের ঘটনা ঘটে।

রবিবার সকাল এগারটার দিকে উখিয়া ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে নিহত শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করে।

জানা যায়, নাইক্ষ্যছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের কচুবনিয়া এলাকার আপন বড়ুয়া কিছুদিন ধরে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি করে আসছিল। গত রাত ১টার দিকে পাহাড় কেটে ৫/৭ডাম্পার গাড়িতে মাটি ভর্তি করছিল। এক পর্যায়ে পাহাড়ের মাটি চাপা পড়ে শ্রমিক নুরুল কাশেম মারা যান। একই ঘটনায় আহত অবস্থায় এক শ্রমিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হলেও তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বলেন, রবিবার সকালে ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় নিহত রোহিঙ্গা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। ঘুমধুম ইউনিয়নের ইউপি সদস্য সুব্রত বড়ুয়া সত্যতা স্বীকার করেন।

ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাংগীর অালম মাটি চাপা পড়ে এক রোহিঙ্গা শ্রমিকের মৃত্যুর কথা শুনেছেন।

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া আফরিন কচি বলেন মাটি কাটার সময় পাহাড় ধ্বসের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় এক শ্রমিক মারা যান।