ঢাকা, রোববার, ২৯ মে ২০২২

প্রতিবেশী দুই দেশ এক হয়ে চলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২৫ ২১:২০:২৫ || আপডেট: ২০১৮-০৫-২৫ ২১:২০:২৫

প্রতিবেশী দুই দেশ এক হয়ে চলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,‘আমরা দুই প্রতিবেশী দেশ এক হয়ে চলতে চাই। প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সমস্যা থাকতে পারে। কিন্তু একে একে আমরা সব সমস্যার সমাধান করেছি।’

আজ শুক্রবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের কলকাতার বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বাংলাদেশ ভবনে’র উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

নরেন্দ্র মোদি ও মমতা বন্দোপাধ্যায়সহ দুই বাংলার সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধনের সুযোগ পেয়ে আনন্দিত। কবিগুরুর হাতে গড়া শান্তি নিকেতন। তিনি আমাদেরও। দুই দেশের জাতীয় সংগীত তিনি লিখেছেন। তার বেশিরভাগ কবিতাই বাংলাদেশে বসে লেখা। তাই আমাদের অধিকার বেশি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিশ্বভারতী বিশ্বদ্যালয়ের সঙ্গে আমার সম্পর্ক পুরনো। তারা আমাকে সম্মানিত করেছে। আমি মনে করি এটা আমারও বিশ্ববিদ্যালয়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধে ভারত বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে। এই অবদান আমরা ভুলবো না। এক কোটি মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে, আমাদের দুই দেশের যোদ্ধাদের রক্ত মিশে গেছে। স্বাধীনতার পর মুজিব-ইন্দিরা চুক্তি হয়। স্থল সীমান্ত চুক্তি। ভারতের সবাই দল মত নির্বিশেষে এক হয়ে বিলটি পাস করে দিলো।  দুই দেশ সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে ছিটমহল বিনিময় করেছি। একটা বিশ্বে একটা দৃষ্টান্ত। উৎসমুখর পরিবেশে এই বিনিময় হয়েছে। এজন্য সবার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন। ওই সময় আমি আবার দেখলাম, প্রতিবেশী বড় বন্ধু। ভবিষ্যতে যে কোনও সমস্যা আমরা বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে সমাধান করতে পারবো।’

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের উন্নয়নে ভারতে যথেষ্ট সাহায্য করে যাচ্ছে। আমরা সকলে মিলে কাজ করে যাচ্ছি যেন এই অঞ্চল থেকে দারিদ্র ‍দূর করে প্রতিটি মানুষ যারা নিচে পড়ে আছে, ক্ষুধার্ত তাদের জন্য কিছু করতে পারি।