ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২

রামু’র পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি, প্রাণহানির আশংকা

প্রকাশ: ২০১৭-০৭-১৫ ১৮:৪৯:১০ || আপডেট: ২০১৭-০৭-১৫ ১৮:৪৯:১০

রামু’র পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি, প্রাণহানির আশংকা

গোলাম মওলা, রামু:
রামুতে ভারি বর্ষণে পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতিতে প্রাণহানির আশংকা রয়েছে।ভারি বর্ষণে ভূমি ধসে বৃহত্তর চট্টগ্রামে ব্যাপক প্রাণহানির পর কক্সবাজারে পাহাড় থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি সরিয়ে নিতে অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসন।

জানা গেছে ,রামু উপজেলা ১১টি ইউনিয়নে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাস রত হাজারো পরিবার ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। পাহাড়ের পাদদেশের ঝুঁকিপূর্ণ ও অতি-ঝুঁকিপূর্ণ বসতির তালিকায় তৈরি করে সরকারি ভাবে অভিযান চালানো দরকার বলে মনে করেন রামুর সচেতন মহল।

পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ ও অতি-ঝুঁকিপূণ ভাবে বসবাস করছেন এমন লোকজনের সাথে কথা বলে জানাগেছে,তারা বলেন আমরা গরিব সাধারণ অসহায় মানুষ, বাড়িটি ছাড়া মাথা গুজার মত আর কোন জায়গা জমি নেই । আমাদের নেই কোন চাষাবাদ করার মত জায়গা। আমরা কেটে খাওয়া দিনমজুর শরীরটাই আমাদের পুজিঁ। তারা আরো অভিযোগ করে বলেন ,যারা রাজনৈতিক ক্ষমতা কে অবৈধ ভাবে ব্যবহার করে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি করছে তাদের কারণে পাহাড় ধসের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। আগে তাদের তালিকা করে আইনের আওতায় আনলে রামুতে পাহাড় ধসের আশঙ্কা কমে আসবে।সরেজমিনে পরিদর্শনে দেখা গেছে ,রাজারকুল রেঞ্জ ও বাকঁখালী রেঞ্জের আওতাধীন এলাকা গুলোেেত পাহাড় কেটে বাড়ি তৈরি এবং ইট ভাটায় মাটি পাচার করেছে অবৈধ ভাবে।