ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

হ্নীলায় দফায় দফায় সংঘর্ষে আহত-২

প্রকাশ: ২০১৭-০৭-১৫ ০০:৩৩:৩৩ || আপডেট: ২০১৭-০৭-১৫ ০০:৩৩:৩৩

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ।

টেকনাফের হ্নীলায় দুইগ্রুপ যুবকের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনায় দুইজন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানা যায়,১৪জুলাই বিকাল সাড়ে ৫টারদিকে উপজেলার হ্নীলা হোয়াকিয়া পাড়ার মৃত কামাল আহমদের পুত্র জামাল হোসাইন (২২) সর্ঙ্গীয় বন্ধুদের নিয়ে মৌলভী বাজার ব্রীজে মোটর সাইকেল নিয়ে যায়। এসময় মৌলভী বাজারের মৃত সোলতান আহমদ বাদশার পুত্র সাদ্দাম হোছন মোটর সাইকেলযোগে কয়েকজন বন্ধু নিয়ে ঐ ব্রীজে যায়। সামান্য কিছু বিষয় নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে সাদ্দামের হামলায় জামাল হোছন আহত ও রক্তাক্ত হয়। তাকে উদ্ধার করে হ্নীলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এরপরই জামাল অনুসারীরা মোটর সাইকেলযোগে সাদ্দামকে খুঁজতে গিয়ে না পেয়ে ফিরে আসে। তার ক্ষুদ্ধ অনুসারীরা সাদ্দামের সহযোগী হিসেবে পূর্ব মহেশখালীয়া পাড়ার মৃত শব্বির আহমদের পুত্র আব্দুর রহিম(২৮)এর উপর হামলা চালিয়ে আহত করে। তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার প্রেরণ করা হয়েছে। এই ব্যাপারে স্থানীয় মেম্বার ফরিদুল আলম মেম্বার বলেন,তারা দু‘পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা জনসাধারণ থেকে শুনেছি। হ্নীলা বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জহির আহমদ বলেন,আমি শুনেছি জামাল মৌলভী বাজার ব্রীজে গেলে তর্কের জেরধরে মৃত বাদশাহর পুত্র সাদ্দামের অস্ত্রের আঘাতে জামাল আহত ও রক্তাক্ত হয়। এরই জেরধরে তার অনুসারীরা রহিমকে মারধর করে। অভিযুক্ত সাদ্দাম অস্ত্র দিয়ে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে হাতাহাতির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে।

এই ঘটনার খবর পেয়ে টেকনাফ মডেল থানার এএসআই মহির সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হ্নীলা বাসষ্টেশন পরিদর্শন করে উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। তিনি জানান,আমি উত্তেজনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।