ঢাকা, রোববার, ৩ জুলাই ২০২২

লাইলাতুল কদর আজ

প্রকাশ: ২০১৭-০৬-২২ ১১:২১:২১ || আপডেট: ২০১৭-০৬-২২ ১১:২১:২১

লাইলাতুল কদর আজ

ঢাকা:  পবিত্র লাইলাতুল কদর আজ। ধর্মপ্রাণ মুসলমানের কাছে এ রাত হাজার রাতের চেয়ে পুণ্যময়।

মহান আল্লাহ ঘোষণা দিয়েছেন, ‘হাজার রাতের চেয়েও উত্তম’ পবিত্র শবেকদর সমগ্র মানবজাতির জন্য অত্যন্ত বরকতময় ও পুণ্যময় রজনী। পবিত্র শবেকদর বা লাইলাতুল কদরের রাতে ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ আল্ল¬াহ’র নৈকট্য ও রহমত লাভের আশায় ইবাদত বন্দেগী করবেন।

পবিত্র রমজান মাসে লাইলাতুল কদরে মহাপবিত্র আল কোরআন নাজিল হয়েছিল। তাই মহান আল্লাহ’র প্রতি শুকরিয়া আদায়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ আগামীকাল সারারাত এবাদত বন্দেগীতে মশগুল থাকবেন।

এ রাতে মুসলমানগণ নফল নামাজ আদায়, পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, জিকির-আসকার, দোয়া, মিলাদ মাহফিল ও আখেরি মোনাজাত করবেন।

পবিত্র শবেকদর উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ পৃথক বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তাঁর বাণীতে সর্বশক্তিমান আল্লাহ্র দরবারে অশেষ রহমত ও বরকত কামনার পাশাপাশি দেশের অব্যাহত অগ্রগতি, কল্যাণ এবং মুসলিম উম্মাহর বৃহত্তর ঐক্য কামনা করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর বাণীতে পবিত্র রজনীতে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে মাতৃভূমি বাংলাদেশ ও মুসলিম জাহানের উত্তরোত্তর উন্নতি, অব্যাহত শান্তি ও কল্যাণ কামনা করেছেন।

পবিত্র শবেকদর উপলক্ষে আগামী শুক্রবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সকল মসজিদে দিন ও রাতব্যাপী ওয়াজ মাহফিল, ধর্মীয় বয়ান ও আখেরি মোনাজাতের আয়োজন করা হবে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দ্বীনি দাওয়াত বিভাগের পরিচালক মোঃ মোজাহারুল মান্নান বলেন, পবিত্র শবেকদর উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশন আগামীকাল বাদ জোহর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে শবেকদরের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিল এবং বাদ মাগরেব (ইফতারের পরে) পবিত্র শবেকদরের প্রাক বয়ান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

রাত ১১টায় মহিলা ও পুরুষদের জন্য পৃথক ব্যবস্থায় ‘শবেকদরের ফজিলত ও করণীয়’ শীর্ষক তাফসিরুল মাহফিল অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে। সেই সাথে ওয়াজ মাহফিল, মিলাদ, কিয়াম ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন থাকবে।

তিনি বলেন, পবিত্র শবেকদরকে ঘিরে এবারই প্রথম ‘কিয়ামুল লাইল’ নামে ফজিলতপূর্ণ আরেকটি আয়োজন করা হয়েছে। এটি বিশেষ তারাবিহ’র নামাজের অনুষ্ঠান। রাত ১২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত এ বিশেষ তারাবিহ’র নামাজ আদায় করা হয়।

শবেকদরকে উদ্দেশ্য করে ২১ রমজান থেকে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে, আগামীকাল ২৬ রমজান শেষ হবে। প্রতি রাতে তারাবিহ’র নামাজে ৫ পারা করে কোরআন পড়া হয় এবং ২৬ রমজান রাতে এখানে কোরআন খতম হবে।

পবিত্র শবেকদর উপলক্ষে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এবং বাংলাদেশ বেতার ও বেসরকারি রেডিও বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করবে। এছাড়া সংবাদপত্রগুলোতে বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশ করা হবে।