ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২

লিংক রোডে চাঁদার দাবীতে বাস কাউন্টারে হামলা, প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

প্রকাশ: ২০১৭-০৬-২২ ১১:১৬:০১ || আপডেট: ২০১৭-০৬-২২ ১১:১৬:০১

আবদুর রাজ্জাক,কক্সবাজার:

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লিংক রোডে চাঁদার দাবীতে বাস কাউন্টারে হামলা চালিয়ে এক কর্মচারীকে আহত করেছে কুদরত উল্লাহর নেতৃত্বে কুদরত বাহিনীর সদস্যরা। গতকাল বুধবার দুপুরে এ ঘটনার পর বাস শ্রমিকরা লিংক রোড এলাকায় সড়ক অবরোধ করে। পরে প্রশাসনের আশ্বাসের পর অবরোধ তুলে নেয় শ্রমিকরা। এ ঘটনায় কক্সবাজার সদর মডেল থানায় এজাহার দায়ের করেছেন কক্সবাজার জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির লিংক রোড কাউন্টারের কর্মচারী আবদু সালাম। এছাড়া এ ঘটনায় জেলা প্রশাসককেও অভিযোগ করা হয়েছে। ভূক্তভোগীরা জানান, কক্সবাজার জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির লিংক রোড কাউন্টার থেকে দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা দাবী করে আসছিল স্থানীয় কুদরত বাহিনীর প্রধান কুদরত উল্লাহ। এর ধারাবাহিকতায় বুধবার দুপুরে কুদরত উল্লাহ ও আবদুল হক এর নেতৃত্বে ৪/৫ জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক বাস কাউন্টারে গিয়ে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। কিন্তু চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তারা কাউন্টারের কর্মচারী আবদু সালামকে বেদম মারধর করে হত্যার চেষ্টা করা হয়। একই সাথে বাস কাউন্টারের লাইনম্যান মুছাকে লিংক রোড ছেড়ে যেতে বলে। অন্যথায় তাকে হত্যা করা হবে বলে প্রকাশ্যে হুমকি দেয়। পরে লোকজন এগিয়ে আসলে তারা দ্রুত স্থান ত্যাগ করে। শ্রমিকরা আহত আবদু সালামকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়। এদিকে বাস কাউন্টারে হামলা করে কর্মচারীকে আহত করার প্রতিবাদে শ্রমিকরা লিংকরোডে সড়ক অবরোধ করে। এসময় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় প্রশাসনের আশ্বাস পেয়ে অবরোধ তুলে নেয় আন্দোলনকারী শ্রমিকরা। ঘটনাটি সাথে সাথে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসককে অভিযোগ হিসেবে অবহিত করা হয়। এ ঘটনায় লিংক রোড মুহুরীপাড়ার মৃত জামাল আহমদের ছেলে কুদরত উল্লাহ (৪২) ও আবদুল্লাহ’র  ছেলে আবদুল হক (৩০) এর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ২/৩ জনের বিরুদ্ধে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় এজাহার দায়ের করেছেন হামলার শিকার আবদু সালাম। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রনজিৎ কুমার বড়–য়া।