ঢাকা, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২

লংগদুতে মোটরসাকেল চালক হত্যাকান্ড : পাহাড়িদের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ

প্রকাশ: ২০১৭-০৬-০৪ ১৩:২৪:১৭ || আপডেট: ২০১৭-০৬-০৪ ১৩:২৪:১৭

লংগদুতে মোটরসাকেল চালক হত্যাকান্ড : পাহাড়িদের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ

রাঙামাটি প্রতিনিধি :: রাঙামাটিতে স্থানীয় একজন মোটরসাকেল চালক এর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার পর পাহাড়িদের ঘরবাড়ি এবং দোকানপাটে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে ।

জানা গেছে নুরুলইসলামনয়ননামেএকমোটরসাকেল চালক  এর লাশ১ জুন বৃহস্পতিবাররাতেখাগড়াছড়িরদীঘিনালা-লংগদুসড়কেরপাশেপাওয়াযাবারপরউত্তেজনারসৃষ্টিহয়।লাশনিয়ে২ জুন শুক্রবারসকালেস্থানীয়বাঙালিরামিছিলবেরকরলেঘটনারসূত্রপাতহয়।

লংগদুথানারভারপ্রাপ্তকর্মকর্তামোমেনুলইসলামগনমাধ্যকেজানান, মিছিলনিয়ন্ত্রণেরবাইরেচলেগেলেলংগদুউপজেলারতিনটিলায়১০-১২টিএবংপার্শ্ববর্তীমানিকজুরছড়ায়তিন-চারটিপাহাড়িদের বাড়িতেঅগ্নিসংযোগকরাহয়।

যেসববাড়িতেআগুনদেয়াহয়তাদেরমধ্যেতিনটিলাইউনিয়নেরচেয়ারম্যানকলিনমিত্রচাকমারবাড়িওসন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্যচট্টগ্রামজনসংহতিসমিতি (পিসিজেএসএস)’রস্থানীয়অফিসওরয়েছে।

এব্যাপারেপার্বত্যচট্টগ্রামজনসংহতিসমিতি (পিসিজেএসএস) ২ জুন শুক্রবারএকবিবৃতিতেঘটনাকে ‘সংঘবদ্ধসাম্প্রদায়িকহামলা’ বলেআখ্যায়িতকরেতারনিন্দাজানিয়েছে।

সংগঠনটির দাবি লংগদু উপজেলার তিনটিলা এবং পার্শ্ববর্তী মানিকজুরছড়ায় ”জুম্মদের প্রায় ২৫০টি ঘরবাড়ি ও দোকানপাট সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হয়েছে”।

পিসিজেএসএসএঘটনায় স্থানীয় ‘সেটলার’ বাঙালিদেরদায়ীকরে বলেন, বাঙ্গালীরা সেনাবাহিনীও পুলিশেরছত্রছায়ায়পাহাড়িদের গ্রামে আক্রমণচালিয়েছে।

পিসিজেএসএসবলছে, লাশনিয়ে ‘জঙ্গিমিছিলবেরকরারখবরজানাজানিহলেস্থানীয়নেতৃবৃন্দলংগদুথানাএবংসেনাজোনেরকর্মকর্তাদেরকাছেতাদেরআশঙ্কারকথাতুলেধরেন।তবেমিছিলশান্তিপূর্ণহবেবলেতাদেরআশ্বস্তকরাহয়বলেপিসিজেএসএসেরবিবৃতিতেবলাহয়।

এই মিছিলেস্থানীয়আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জামায়াতেইসলামী,সমঅধীকার আন্দোলনসহঅন্যান্যসংগঠনেরকর্মীরাঅংশনেয়বলেঅভিযোগকরেপিসিজেএসএসসেনা-পুলিশসহঘটনারসাথেজড়িতসকলেরবিরুদ্ধেআইনানুগব্যবস্থাগ্রহণেরজন্যসরকারেরকাছেদাবিজানিয়েছে পার্বত্য চুক্তি পক্ষের এই সংগঠনটি।

জানা গেছে লংগদু উপজেলার তিনটিলা ও মানিকজুরছড়ায় ঘরবাড়ি এবং দোকানপাট সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হওয়াতে প্রাণ ভয়ে অন্যত্র পালিয়ে গেছে স্থানীয় পাহাড়িরা।

এদিকে অবিলম্বে নয়ন হত্যার সুষ্ঠ তদন্তের দাবি জানিয়েছে পিবিসিপি ও সমঅধিকার আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ।

গণমাধ্যমে প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠন ২টি জানায় গত ১ জুন বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় দিঘীনালা সড়কের চার মাইল নামক স্থানে উদ্ধারকৃত মোটর সাইকেল চালক নুরুল ইসলাম নয়ন হত্যার প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রাম সমঅধিকার আন্দোলন এর রাঙামাটি জেলা শাখার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মুন্না ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কামাল।

সংগঠনটির দাবি, নিহতের পরিবার ও স্থানীয় জনগণের ভাষ্য মতে তাকে দুইজন উপজাতি যাত্রী ভাড়া নেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায়। মহালছড়ির সাদিকুলকে যে ভাবে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে ঠিক একই ভাবে লংগদু উপজেলার নুরুল ইসলাম নয়ন কেও হত্যা করা হয়েছে।

উল্লখ্য গত ১জুন মোটর সাকেল চালক নুরুল ইসলাম নয়ন এর হতাকান্ড ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষুব্দ লোকজন লংগদুর বাইট্ট্যা পাড়া, তিনটিলার ও মানিকজোরছড়ার তিনটি গ্রামে পাহাড়িদের বাড়িঘরে অগ্নি সংযোগের ঘটনায় শতাধিক ঘড়বাড়ী ভষ্মিভুত হয়।