ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

সৈকতে হাঁটা কর্মসূচি বন্ধ করেছে দি লংগষ্টে ওয়াক

প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৭ ২২:৫৮:০০ || আপডেট: ২০১৭-০৩-১৭ ২২:৫৮:০০

কক্সবাজার পিপলস ফোরামের দাবীর প্রতি একাত্মতা ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক::

জীব বৈচিত্র রক্ষায় সৈকতে ১০০ কিলোমিটার হাঁটা কর্মসূচি বাতিল করেছে দি লংগেষ্ট ওয়াক-২০১৭ইং। তারা ৩০ জন সহযাত্রী নিয়ে কক্সবাজার সৈকতের লাবণী পয়েন্ট থেকে সকাল ১০টায় কলাতলী সৈকত পর্যন্ত হেঁটে যাবেন। তারপর মেরীন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে টেকনাফের শাহপরীদ্বীপ পর্যন্ত যাওয়ার কথা। ১৮-২০মার্চ তিনদিন ব্যাপী এই কর্মসুচি চলবে।

গতকাল বিকেলে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) আনোয়ারুল নাছেরের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন,বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের আওতাধীন ন্যাশনাল হোটেল এন্ড ট্যুরিজম ট্রেনিং ইনাষ্টিটিউটের অধ্যক্ষ পারভেজ এ চৌধুরী ,ডাটা সফট এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মাহবুব জামান,বেজ ম্যাম্পের ম্যানিজিং ডিরেক্টর তামজিদ সিদ্দিক,স্পন্দন ও টুয়াক সভাপতি রেজাউল করিম।

সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দৈনিক রূপালী সৈকত সম্পাদক ও পিপলস ফোরামের সভাপতি ফজলুল কাদের চৌধুরী, চ্যানেল আই প্রতিবেদক সরওয়ার আজম মানিক,ডিবিসি চ্যানেল প্রতিনিধি শংকর বড়ূয়া রুমি, এশিয়ান টিভি প্রতিনিধি মোম্মদ শফিক।

বক্তব্যে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের জীব বৈচিত্রের বিবরন তুলে ধরে বলেন, বর্তমানে সমুদ্রের প্রাকৃতিক ধাড়–দার বিশেষ পরিচিত কচ্ছপ,সৈকতের ঝাড়–দার কাঁকড়া, বিরল প্রজাপ্রতি পাখিও লক্ষ লক্ষ জীবের অবস্থান রয়েছে। রয়েছে নিরব পরিবেশ। সৈকত প্রতিবেদ সংকটাপন্ন এলাকায় অবস্থিত। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র না নিয়ে সৈকতে হেঁটে জীব বৈচিত্র ধ্বংস করা যাবে না।

আয়োজক নেতৃবৃন্দ এ যুক্তির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে সৈকতে হাঁটা কর্মসুচি বাতিল করে মাত্র ৩০ জন সহযাত্রী নিয়ে হাঁটবেন বলে ঘোষণা দেন। সভায় কক্সবাজারের প্রায় ৬০ জন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।