ঢাকা, সোমবার, ৪ জুলাই ২০২২

ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সংবাদে এলাকায় তোলপাড় !

প্রকাশ: ২০১৭-০৩-০৫ ১৬:৫২:১৬ || আপডেট: ২০১৭-০৩-০৫ ১৬:৫২:৪৭

শহর প্রতিনিধি :
সদর উপজেলার ইসলামপুরে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা রয়েছে সংবাদে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে । এ নিয়ে সরেজমিনে তদন্তের দাবি উঠছে । কারণ এ নামের কোন মুক্তিযোদ্ধা এলাকায় ছিল তা গত প্রায় পাঁচ দশকেও কেউ জানেনা । সম্প্রতি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর এলাকায় ইসলাম নামের একজন মুক্তিযোদ্ধা রয়েছে বলে এলাকাবাসী জানতে পারে।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায় , সম্প্রতি ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা যাছাইয়ের উদ্যোগ নেয় সরকার । এর প্রেক্ষিতে সম্প্রতি ইসলামপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মৃত ইমাম শরীফের ছেলে ইসলাম আহদের বিরুদ্ধে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ তুলে জন স্বার্থে কক্সবাজার জেলা মুক্তিযোদ্ধা বাছাই কমিটিতে অভিযোগ দায়ের করেন শ্রী পল্লব কান্তি চৌধুরী । অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৫ ফেব্রুয়ারী তদন্তের দায়ীত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা কলিম উল্লাহ যার কার্ড নং ২৪ সরেজমিনে তদন্ত করে সত্যতা পায় বলে গত ২ মার্চ কক্সবাজার থেকে প্রকাশিত দৈনিক দৈনন্দিন পত্রিকার সংবাদে প্রকাশিত হয় ।

এমনকি ২০০৩ সালে প্রকাশিত তলিকায়ও তার নাম ছিলনা বলে পত্রিকায় উল্লেখ করে । এদিকে স্থানীয়ারা জানান, এলাকায় ইসলাম নামের সার্টিফিকেটধারী মুক্তিযোদ্ধা আছে তারা পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের আগে কখনো জানেননা ।

এ ইসলামকে তারা চিনেন সে মুক্তিযুদ্ধকালে লবণ ব্যবসায় জড়িত ছিল এবং পরবর্তীতে এরশাদ সরকারের আমলে রাষ্ট্রায়াত্ত ব্যাংক থেকে ব্যাবসার নামে লোন নিয়ে পরে খেলাপি মামলায় জেলে যায় । সে ২০০৫ সালে এসে কিভাবে মুক্তিযোদ্ধা হয়ে গেল তা কারো বোধ গম্য হচ্ছে না । তাদের ধারণা, উক্ত সময় যারা জেলায় মুক্তিযোদ্ধার দায়ীত্বে ছিল তারা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাকে এ সার্টিফিকেট দিয়েছে । পরে সে এ সার্টিফিকেট ব্যবহার করে জায়গা বন্দোবস্তি, ছেলে মেয়েদের চাকরিসহ নানা সুযোগ সুবিধা করে চলছে । যা সরেজমিনে তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে বলে তাদের দাবি ।

এ ব্যাপারে তারা সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের জরুরী হস্থক্ষেপ কামনা করেছেন ।