ঢাকা, সোমবার, ৪ জুলাই ২০২২

কক্সবাজারের সংবাদ সেবীদের প্রতি একজন নগণ্য সংবাদ কর্মির আবেদন

প্রকাশ: ২০১৭-০১-২০ ২৩:৪২:১২ || আপডেট: ২০১৭-০১-২৪ ২৩:৩৩:৩৭

কক্সবাজারের সংবাদ সেবীদের প্রতি একজন নগণ্য সংবাদ কর্মির আবেদন
জসিম আজাদ::
ছাত্র ইউনিয়ন করার সুবাদে কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর (পুরাতন) দাবা কক্ষে প্রায় সময় যেতাম। কেননা, কক্সবাজার জেলা ছাত্র ইউনিয়ন অনুমতি সাপেক্ষে ঐ দাবা কক্ষকেই  জেলা অফিস হিসাবে ব্যবহার করতো। দাবা কক্ষে আসা-যাওয়া করতে করতে অনেক প্রগতিশীলিয়ানদের সাথে পরিচয়। তাদের একজন জাহেদ সরওয়ার সোহেল। তিনি লেখালেখির পাশাপাশি প্রগতিশীল সমস্ত আন্দোলনের সাথে যুক্ত থাকতেন। অবসরে মাঝে মধ্যে দাবা কক্ষে এসে আড্ডা দিতেন।

২০০৭ সালে আমার লিটল ম্যাগ প্রতিসরণ (২য় সংখ্যা) প্রকাশ করতে খুবই ব্যস্ত সময় পার করছি। প্রয়াত কবি মাসউদ শাফি আমাকে যথেষ্ট সময় দিয়েছিলেন। সোহেল ভাইও অনেক প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিয়ে সহযোগীতার পাশাপাশি একটি লিখাও দিয়েছিলেন। তারপর থেকে সোহেল ভাইয়ের প্রতি আমার ভালবাসারটা বাড়তে থাকে। পরবর্তীতে জাহেদ সরওয়ার সোহেল জেলা খেলাঘরের সভাপতি হওয়ার পর আমি একজন খেলাঘরিয়ান হিসাবে অনেক মেশার সুযোগ হয়েছে। যত মিশেছি ততই মুগ্ধ হয়েছি। ভালবাস ক্রমান্বয়ে বেড়েছে। বেশ কয়েক বছর সোহেল ভাইয়ের খুব কাছে গিয়ে মেশার সুযোগ হয়নি। তবে, ভালবাসা একটুও কমেনি। আগামীতে ক্রমাগতই বাড়ছে। কেননা, তিনি ভালবাসার মতনই মানুষ। একটু পরিস্কার করে বললে, চট্টগ্রাম কলেজে অধ্যায়কালিন সময়ে বাম ঘেষা থাকায় আমাদের বিচরণটা ছিল চট্টগ্রাম মুসলিম হল কেন্দ্রিক। মুসলিম হলে অনেক বিখ্যাত ব্যাক্তিদের বক্তব্য শুনার সুযোগ কিংবা সোভাগ্য আমার হয়েছে। কিন্তু জাহেদ সরওয়ার সোহেল এর মত কারো বক্তব্য আজ অবধি আমার উপর আছর করতে পারেনি। তাই জাহেদ সরওয়ার সোহেল আমার প্রিয় বক্তা।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাথে যে মানুষটি আমাকে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন, যার ব্যক্তিত্ব ও আদর্শ আমাকে ছাত্র ইউনিয়ন মুখী করেছেন তিনি শংকর বড়ুয়া রুমি। আমার প্রিয় শংকর দা।

২০০১ সালে কক্সবাজার কলেজে ভর্তি হওয়ার পর আমার সিনিয়র ব্যাচের এক ভাইয়ের দৈহিক গঠন দেখলে সবাই অবাক হতেন। পরে জানলাম তিনি আমাদের এলাকার ছেলে জনাব মাহমুদুল হক চৌধুরীর পুত্র ইমরুল কায়েস চৌধুরী। বড় ভাই হিসাবে তার প্রতি সব সময় ভালবাসা ছিলো এবং আছে। তিনি গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করার কথা শুণে যারা সবচেয়ে বেশি খুশি হয়েছিলেন তাদের একজন আমি। তাই আবেগের জায়গা থেকে ইমরুল ভাইকে নিয়ে ছোট্ট একটি লিখা পোষ্ট করিছিলাম শিরোনাম ছিলো ‘ইমরুল কায়েস: হলদিয়ার আকাশের নতুন সূর্য’।

আমি সেই জাহেদ সরওয়ার সোহেল, শংকর বড়ুয়া রুমি, ইমরুল কায়েস চৌধুরীকে অনুরোধ করছি, কক্সবাজারের সকল সংবাদ সেবীদের নিয়ে সম্প্রতি সৃষ্ট ভুল বোঝাবুঝি নিরসনের উদ্যোগ গ্রহণ করে সমস্যাটি সমাধানে এগিয়ে আসুন। এতে সকলের মঙ্গল হবে।

আমরা যারা মফস্বলে আছি, সবাই দেখছি আপনাদের বিষয়গুলো আজ অনেকের ঠাট্টার উপকরণ হচ্ছে।

(বিঃদ্রঃ যদি ভুল হয় মার্জনা করবেন)