ঢাকা, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২

আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রোহিঙ্গা শিবিরে প্রশাসনের নজরদারী বাড়ানো জরুরী

প্রকাশ: ২০১৭-০১-১১ ১৮:২২:১৯ || আপডেট: ২০১৭-০১-১১ ১৮:৪০:২১

আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রোহিঙ্গা শিবিরে প্রশাসনের নজরদারী বাড়ানো জরুরী
পলাশ বড়ুয়া:
প্রতিদিনের ন্যায় রুটিন কাজে যাওয়ার বাহন সিএনজি তে উঠার পরপরই পঞ্চাশোর্ধ এক ব্যক্তি কাঁধে কিছু পাইপ ও লোহার পাত নিয়ে ড্রাইভারকে জিজ্ঞেস করলো কুতুপালং যাবে? প্রতি উত্তরে ড্রাইভার বলল, না গেলেও ঐ দিকের গাড়িতে উঠিয়ে দিব। লোকটির গতিবিধি সন্দেহ হলে জাসুসি প্রবণতা চেপে বসে আমায়।

চাচা আপনার বাড়ি কোথায় ?
উত্তরে- আমতা আমতা করে বলে কুতুপালং।

কুতুপালং কোথায় ? না শোনার ভান করলে পরে নিজ থেকে বললাম ক্যাম্পে নাকি ?
উত্তরে- তিনি বলেন হ্যাঁ।

রেজিষ্ট্রার্ড নাকি আন-রেজিষ্ট্রার্ড ?
উত্তরে- রেজিষ্ট্রার্ড।

কোথায় গিয়েছিলেন ?
উত্তরে-  কোটবাজার।

ক্যাম্প থেকে বের হতে অনুমতি লাগে না ?
উত্তরে- দূরে (ঢাকা-শহরে) কোথাও গেলে অনুমতি লাগে।

ছেলে-মেয়ে কয়জন ?
উত্তরে- মাশাল্লাহ- ১৩ জন।

সবাই কি কুতুপালং ক্যাম্পে অবস্থানরত ?
উত্তরে- ১জন সৌদিতে, কুতুপালং ক্যাম্পে-৯ জন, মিয়ানমারে-৩ জন।

পাইপ গুলো কিসের জন্য ?
উত্তরে বলেন- আমার একটা কামারের দোকান আছে। ঐখানে ব্যবহারের জন্য।
পথিমধ্যে রাস্তাও শেষ। হাতে থাকা ডিভাইসে লোকটির ছবি ধারণের চেষ্টা করছি বুঝতে পেরে নাম জিজ্ঞেস করলেও কিছু না বলে দ্রুত গাড়ি থেকে নেমে অন্য গাড়ি ধরে চলে যায় কুতুপালংয়ের উদ্দেশ্যে।

লক্ষ্যণীয় বিষয় ছিল বিশেষ কায়দায় সাইজ করা লোহার পাত এবং পৌনে ইঞ্চি, এক ইঞ্চি কিংবা সোয়া ইঞ্চি সাইজের কার্টিং করা পাইপ গুলোর দৈর্ঘ্য ছিলো ১ফুট, দেড় ফুট, সর্বোচ্চ দুই/আড়াই ফুট। বিশেষ কায়দায় সাইজ করা পাইপ গুলো যথাসম্ভব অস্ত্র তৈরির কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে বলে ধারণা।

এদিকে ১০ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) গহীণ অরণ্যে র‌্যাবের অভিযানে ৩জনকে আটক সহ টেকনাফের আনসার ক্যাম্প থেকে লুট হওয়া অস্ত্র সহ বিপুল পরিমাণ অস্ত্র, গোলাবারুদ উদ্ধার হয়।

লোকটি রোহিঙ্গা হলেও গতিবিধিতে সুবিধাজনক মনে হয়নি মোটেও। তাই গোয়েন্দা বিভাগ ও সংশ্লিষ্ট আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারী ও অপরাধ দমণে কঠোর হস্তক্ষেপ জরুরী। কোন নিয়মে পরিচালিত হয় রোহিঙ্গা শিবির ? সম্প্রতি রোহিঙ্গা শিবিরে দাতা সংস্থার নামে খ্যাত-অখ্যাত ভুইঁপোড় এনজিও কর্মী এবং স্থানীয় স্বার্থান্বেষী মহল রোহিঙ্গা অপরাধীদের সাথে সম্পৃক্ততার গুরুত্বর অভিযোগ উঠেছে। অপরদিকে ক্যাম্পে দায়িত্বরত স্বল্প সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও সখ্যতায় হেলায় গা ভাসাচ্ছে এমনটি দাবী সচেতন মহলের।