ঢাকা, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২

লামায় পয়লা জানুয়ারি নতুন বইয়ের ঘ্রাণে উচ্ছসিত খুদে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশ: ২০১৭-০১-০১ ১৩:২০:৫৩ || আপডেট: ২০১৭-০১-০১ ১৩:২৩:৩৯

লামায় পয়লা জানুয়ারি নতুন বইয়ের ঘ্রাণে উচ্ছসিত খুদে শিক্ষার্থীরা

উথোয়াই মারমা জয়: সকাল থেকে খুদে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠে স্কুল প্রাঙ্গণ। উদ্দেশ্য একটাই নতুন বই পাওয়া আর নতুন বইয়ের ঘ্রাণ নেওয়ার। এ যেন নতুন বছরে উপহার পেল খুদে শিক্ষার্থীরা। নতুন বছরের প্রথম দিন, তাই আনন্দটাও ছিল বেশি। খুদে শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-অভিভাবকরাও পাঠ্যপুস্তক উৎসবে শামিল হয়েছিলেন বান্দরবান লামা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।

সারা দেশের ন্যায় পাহাড়ী উপজেলা লামায় ১০১টি সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে নববর্ষের প্রথম দিনে উৎসব মুখর পরিবেশে পালিত হলো বই বিতরণ উৎসব। নতুন বছরের প্রথম দিনে নতুন বইয়ের ঘ্রাণ পেয়ে আনন্দে উচ্ছাসিত ছিল ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা।

১লা জানুয়ারি রবিবার সকাল ১০টায় লামা পৌরসভার অন্তগত চেয়ারম্যান পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গনে প্রধান অতিথি হিসেবে বই বিতরণের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন লামা পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম।

বই বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, নতুন বই যেমন শিশুদের আকৃষ্ট করবে তেমনি ভাবে শিক্ষক, শিক্ষিকা ও অভিভাবকসহ শিক্ষাক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টরা আন্তরিক ও যতœবান হলে সকল শিশুরা মানসম্মত জ্ঞান আহরণ অনায়াসে করতে পারবে। ফলাফল অর্জনের দিক দিয়ে এবারো চেয়ারম্যান পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাফল্যে তিনি শিক্ষক ও অভিভাবদের ধন্যবাদ জানিয়ে পুরাতন স্কুল ভবনটি মেরামত ও আসবাবপত্র তৈরি করে দেওয়ার কথা জানান।

বই বিতরণ কালে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার যতীন্দ্র মোহন মন্ডল, সহকারি শিক্ষা অফিসার আশীষ কুমার মহাজন, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার মোঃ রফিক উদ্দিন, সাবেক যুবলীগ সভাপতি নিজাম উদ্দিন, উপজেলা আ.লীগে যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন সেলিম, মহিলা কাউন্সিলার জোসনা বেগম, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যবৃন্দ, বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষকমন্ডলীসহ প্রমূখ।

লামা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার যতীন্দ্র মোহন মন্ডল জানান, লামা উপজেলায় ১লক্ষ ১৯হাজার ৫শত৮০ টি নতুন বই ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে । গত মাসে ২৫ডিসেম্বর লামা উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বই পৌছে দেওয়ার কথাও জানান।