ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

জিটিভি’র কক্সবাজার জেলা অফিস ও দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তা কার্যালয়ে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

প্রকাশ: ২০১৫-১১-০৪ ১৬:৪৮:৪৮ || আপডেট: ২০১৫-১১-০৪ ১৬:৪৮:৪৮

কম্পিউটার, ল্যাপটপ, প্রিন্টারসহ মূল্যবান কাগজপত্র ভস্মিভূত……..

Coxsbazar Barta pic-01
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
জিটিভি’র কক্সবাজার জেলা অফিস ও দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তা পত্রিকার কার্যালয়ে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের বন বিভাগের বিপরীত পাশে, প্রধান সড়কস্থ হোটেল আল আমিনের ৩য় তলায় দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তা ও জিটিভি’র কক্সবাজার অফিসে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। আধাঘন্টা পর ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে প্রানপণ চেষ্টা চালিয়ে সাড়ে ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পায় হোটেল আল-আমিন কমপ্লেক্স ভবনসহ আশেপাশের অর্ধ শতাধিক দোকানপাট ও বাড়িঘর।

পত্রিকার কর্তৃপক্ষ জানান, আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে কার্যালয়ের সমস্ত কম্পিউটার, ল্যাপটপ, প্রিন্টার, মূল্যবান ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, পত্রিকা, জিটিভি’র ভিডিও ক্যামেরা, ইন্টারনেটের যাবতীয় মেশিনারিজ মালামাল ও আসবাবপত্র। প্রাথমিক ভাবে প্রায় সাড়ে ৩ (তিন) লক্ষ টাকার মত ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে জানান পত্রিকার কর্তৃপক্ষ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পৌনে ১১টার দিকে হোটেল আল-আমিন কমপ্লেক্স ভবনের ৩য় তলার দক্ষিনপাশের কক্ষগুলো থেকে আগুনের লেলিহান শিখা বের হতে থাকে। এসময় মুহুর্তেই পুরো এলাকা ধোয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়। পরে প্রতিবেশী দেকানদাররা ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের ১টি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। প্রায় ১ ঘন্টা ধরে দমকল কর্মীরা প্রানপণ চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়।

পত্রিকাটির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক, জিটিভি’র কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি ও কক্সবাজার ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিষ্ট এ্যাসোসিয়েশন এর সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম জানান, পূর্ব শত্র“তার জের ধরে পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া অফিসে অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে। এছাড়া, দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার বার্তা পত্রিকায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন, আরএসও, জেলার কু-খ্যাত সন্ত্রাসী, মানবপাচারকারী, ইয়াবা ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের দূর্নীতির বিরুদ্ধে ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশের জের ধরে উক্ত পত্রিকার প্রতিবেদকসহ কর্মকর্তাদের এসব অপরাধীরা হুমকী প্রদান করে আসছিল। এছাড়া দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তা’র উত্তরোত্তর সফলতায় ঈর্ষান্বিত হয়েও স্বার্থান্বেষী মহল এঘটনা ঘটাতে পারে বলেও তিনি মন্তব্য করেন তিনি। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

ফায়ার সার্ভিসের অগ্নি নির্বাপক কর্মীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, ঠিক কোথা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা ইতোমধ্যে বলা যাচ্ছে না। তবে প্রত্যক্ষদর্র্শীদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, অফিসের বাইরে কোথাও থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। তবে তদন্ত করে বিষয়টি জানানো হবে বলে তিনি জানান।