ঢাকা, সোমবার, ৪ জুলাই ২০২২

আন্তরিক নেতৃত্বের অভাবে ঈদগাঁওবাসী উপজেলা থেকে বঞ্চিত

প্রকাশ: ২০১৫-১১-০১ ১৩:৪৯:৫২ || আপডেট: ২০১৫-১১-০১ ১৩:৪৯:৫২

download (1)
মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও::
ঈদগাঁওবাসী যুগ যুগ ধরে বঞ্চিত ও অবহেলিত। স্থানীয়ভাবে দক্ষ ও উপযুক্ত নেতৃত্ব তৈরি হলেও বাস্তবে তারা শহরমুখী হওয়ায় প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর এ বৃহৎ এলাকাটি বর্তমানে অভিভাবক শূণ্য হয়ে পড়েছে। হাজার হাজার জনসংখ্যা অধ্যুষিত সু-প্রাচীন এ জনপদটি প্রশাসনিক উপজেলা ঘোষিত না হওয়ায় সরকারী নানা সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত। স্থানীয় মানসিকতা সম্পন্ন একমাত্র দক্ষ ও উপযুক্ত নেতৃত্বই ঈদগাঁওবাসীকে প্রশাসনিক উপজেলা উপহার দিতে সক্ষম। ৩১ অক্টোবর সন্ধ্যায় ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ আয়োজিত বিশেষ মতবিনিময় অনুষ্ঠানের বক্তারা উপরোক্ত অভিমত ব্যক্ত করেন। এতে বর্তমান নেতৃত্বের মতিগতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেন উপস্থিত অনেকেই। তাদের মতে, কেবলমাত্র সরকারের অনুকূলের প্রভাবশালী ও ক্ষমতাধর ব্যক্তিই ঈদগাঁওকে প্রশাসনিক উপজেলা ঘোষণার দাবী আদায় করতে সক্ষম। কিন্তু বাস্তবে ঐ বিশেষ নেতৃত্বের সেরূপ আন্তরিকতা ও মানসিকতা দেখা যাচ্ছে না। সংসদে কিংবা মাঠে-ময়দানে উপজেলা ঘোষণার ব্যাপারে যতই আন্তরিকতা দেখাক না কেন কাজে কর্মে কিন্তু তেমনটা মনে হচ্ছে না। সত্যিকার অর্থেই যদি বর্তমান নেতৃত্ব উপজেলার ব্যাপারে আন্তরিক হতেন তাহলে উপজেলা বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া অনেকদূর এগিয়ে যেতো। তাদের মনের কথা এবং মাঠে ময়দানের কথা নিয়ে অনেকের মধ্যে নানা রহস্যের সৃষ্টি হচ্ছে। নবনির্মিত ঈদগাঁও পাবলিক লাইব্রেরী চত্বরে আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব ও স্বাগত বক্তব্য দেন ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ আহবায়ক আলহাজ্ব ছব্বির আহমদ এম.এ। অতিথিদের মধ্যে ছিলেন ঈদগাঁও আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার নুরুল আজিম, ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা বিএনপির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মো. শওকত আলম শওকত, ইসলামী ঐক্যজোটের জেলা শাখার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ আবদুর রহিম ফারুকী, ইসলামাবাদ বিএনপির নবনির্বাচিত সভাপতি আলহাজ্ব মো. ছানা উল্লাহ, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দীন, ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক বেলাল উদ্দীন। ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ সদস্য সচিব সাংবাদিক মো. রেজাউল করিমের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন বাস্তবায়ন পরিষদ যুগ্ম আহবায়ক আওয়ামী লীগ নেতা ডা. আবদুল কুদ্দুছ মাখন, যুগ্ম আহবায়ক ও বিএনপি নেতা আলহাজ্ব মোহাম্মদ শফি। অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা মাষ্টার মোক্তার আহমদ, সৈনিক লীগ নেতা গিয়াস উদ্দীন ও ছাত্রনেতা বেলাল উদ্দীন। উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা শেখ ছৈয়দ আলম, আওয়ামী লীগ নেতা মো. সরওয়ার কামাল, পোকখালী যুবদল নেতা সমাজ সেবক আজিজুল হক রুবেল, সাংস্কৃতিক সংগঠক কুতুব উদ্দীন চৌধুরী, ঈদগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা ফারুক, জালালাবাদ ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক মো. আনিসুর রহমান, কবি ও প্রাবন্ধিক নোমান মাহমুদ, দিদারুল আলম, সংবাদকর্মী আবুহেনা সাগর। অনুষ্ঠানে ব্যক্তিগত বিশেষ পারফরম্যান্স বিবেচনায় মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার নুরুল আজিমকে ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদের ‘সমন্বয়ক’ এবং ঈদগাঁও উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মো. শওকত আলম শওকতকে ‘যুগ্ম আহবায়ক’ ঘোষণা করা হলে উপস্থিত সবাই তাতে সম্মতি দেন। অন্যদিকে কবি নোমান, যুবনেতা আজিজ, ছাত্রনেতা বেলাল ও আনিস উপজেলা বাস্তবায়ন আন্দোলনের চলমান কার্যক্রমে একাত্মতা ঘোষণা করায় তাদেরকে সদস্য হিসেবে অন্তর্ভূক্তির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।