ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২

এমপিওভুক্তির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চান নন-এমপিও শিক্ষকেরা

প্রকাশ: ২০১৫-১০-৩০ ১৩:৩২:৪৮ || আপডেট: ২০১৫-১০-৩০ ১৩:৩২:৪৮

3-400-300x166
নিজস্ব প্রতিবেদক ::
এমপিওভুক্তির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চেয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের শিক্ষকেরা। এমপিওভুক্তির ঘোষণা না আসা পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চলিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন তাঁরা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আন্দোলনরত নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচি থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। নিম্নমাধ্যমিক-মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ, কারিগরি ও মাদ্রাসার স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার দাবিতে আন্দোলন করছেন এসব শিক্ষক। বেলা ১১টা থেকে চতুর্থ দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন তাঁরা।

সমাবেশে অভিযোগ তোলা হয়, প্রধানমন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়ে শিক্ষকদের আন্দোলন সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা দেওয়া হয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে এ বিষয়ে তাঁকে অবহিত করতে চান আন্দোলনকারীরা।

দীর্ঘদিন ধরে এমপিওভুক্তি ঝুলে থাকায় শিক্ষামন্ত্রীর সমালোচনা করে অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া শিক্ষকেরা বলেন, ‘তিনি শিক্ষকদের পরিবারের সদস্য বলে দাবি করেন। কিন্তু পরিবারের একটি অংশ অভুক্ত থাকে কীভাবে?’

অবস্থান কর্মসূচিতে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরা হয়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে—স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে হবে, যোগদানের তারিখ থেকে বয়স গণনা করতে হবে, নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি ও পাঠদান বন্ধ রাখতে হবে, এমপিও প্রদানে যেকোনো ধরনের অনিয়ম, পক্ষপাত ও ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে এবং স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ইনডেক্স নম্বর দিতে হবে।

ফেডারেশনের সভাপতি এশারত আলী, সাধারণ সম্পাদক তাপস কুমার কুণ্ডু, বাসদের নেতা রাজেকুজ্জামান রতন প্রমুখ সমাবেশে বক্তব্য দেন।