ঢাকা, শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২

ইউপি নির্বাচনে কেউ আচরনবিধি লঙ্ঘন করে পার পাবে না : কাপ্তাই ইউএনও

প্রকাশ: ২০২২-০৬-০১ ১৮:২৯:০১ || আপডেট: ২০২২-০৬-০১ ১৮:২৯:০১

 

কাপ্তাই প্রতিনিধি:
কাপ্তাই উপজেলাধীন ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীদের আচরণবিধি অবহিতকরণ ও আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক এক সভা বুধবার (১ জুন) বিকেল ৩ টায় কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষ “কিন্নরী”তে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে নির্বাচনে অংশ গ্রহনকারী সকল চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থী এবং বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যসহ সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২২-এর রিটার্নিং অফিসারের আয়োজনে এই সভায় সভাপতিত্ব করেন কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাচনে আচরণবিধি প্রতিপালনের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মুনতাসির জাহান।

সভায় তিনি বলেন, ইভিএম পদ্ধতির মাধ্যমে একটি সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহন যোগ্যতামূলক নির্বাচন করার জন্য আমরা বন্ধ পরিকর। সরকার ইভিএম পদ্ধতির মাধ্যমে ১০০ ভাগ স্বচ্ছ নির্বাচন করার ব্যাপারে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ। তাই কেউ নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে পার পাবেন না।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা তানিয়া আক্তার সভার শুরুতেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) বিষয়ে একটি ভিডিও ক্লিপ্সের মাধ্যমে প্রার্থীদের অবহিত করেন এবং সভায় একটি সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যাপারে সকলকে আশ্বাস প্রদান করেন।

তিনি নির্বাচনী আচরণবিধি প্রার্থীদের সামনে তুলে ধরে আরও বলেন, কেউ পেশীশক্তি ব্যবহার করে নির্বাচন প্রভাবিত করতে চাইলে সাথে সাথে নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে।

সভায় কাপ্তাই থানার ওসি জসিম উদ্দিন বলেন, একটি সুষ্ঠু শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করার জন্য পুলিশ বাহিনী সবসময় প্রস্তুত আছে। নির্বাচনে কেউ আইন-শৃঙ্খলা লঙ্ঘন করলে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

এসময় কাপ্তাই উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ঝরনা রানী দেব এবং কাপ্তাই প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক ঝুলন দত্ত উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন।

সভায় চেয়ারম্যান প্রার্থী ও সদস্য প্রার্থীরা তাদের বক্তব্যে ইভিএম এবং নির্বাচনী আচরণ সম্পর্কে জানতে চাইলে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রট মুনতাসির জাহান ও রিটার্নিং কর্মকর্তা তানিয়া আক্তার সেসব প্রশ্নের জবাব দেয়।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৫ জুন চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে ২ জন চেয়ারম্যান, ২১ জন সাধারণ সদস্য ও ১৩ জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।