ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২

উখিয়ায় শিক্ষকের জমি দখলের পায়তারা করছে এক মেম্বারসহ সংঘবদ্ধ চক্র

প্রকাশ: ২০২২-০৫-২৯ ০১:১৫:৩৬ || আপডেট: ২০২২-০৫-২৯ ০১:১৫:৩৬

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজারের উখিয়ায় গভীর রাতে অবৈধ ভাবে এক স্কুল শিক্ষকের ওয়ারিশী এবং দীর্ঘদিনের ভোগদখলীয় জমি জবর দখলের চেষ্টা করেছে আব্দুল হক মেম্বারের নেতৃত্বে ৩০/৪০ জনের সংঘবদ্ধচক্র।

২৮ মে রাতে ঘটনাটি ঘটেছে উখিয়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের পশ্চিম-উত্তর এবং আরকান সড়কের পূর্ব পার্শ্বে।

এ ঘটনায় উখিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষক মো: শাহ জাহান। সে মধ্যম সিকদার বিল এলাকার মৃত কালু সওদাগরের ছেলে এবং সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। পরে একই দিন বিকেলে ন্যায় বিচারের আশায় জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলন করেন ভুক্তভোগীর পরিবার।

অভিযোগে প্রকাশ, গত কিছুদিন ধরে ১। আব্দুল হক (৩২), পিতা-হাজী শামশুল আলম, সাং-ফলিয়া পাড়া, ০৬নং ওয়ার্ড, ০৪নং রাজাপালং ইউপি, ২। সুনীল বড়ুয়া (৫৯), পিতা-মৃত বিরিঞ্চি বড়ুয়া, সাং-পশ্চিম রত্না, ০২নং রত্নাপালং ইউপি, ৩। আব্দুর রহমান (৬০), পিতা-আব্দুর রশিদ, সাং-রত্নাপালং, ০২নং রত্নাপালং ইউপি ৪। ফরিদ আলম (88), পিতা-মৃত আগদ আলী, সাং-মোহাম্মদ আলীর ভিটা, রাজাপালং, ৫। আব্দু শুকুর (৪৬), পিতা নুরুল আলম, ৬। দেলোয়ার হোসেন (৩৩), পিতা-সৈয়দ আহমদ, ৭। দিদার আলম (৩৪), পিতা-মোঃ ইসমাইল, সর্বসাং-ঘিলাতলী, ৭। মোঃ ফারুক (৪১), ৮। দিদার মিয়া (৩৫), উভয় পিতা হায়দার আলী, উভয় সাং-মোহাম্মদ আলী ভিটা, রাজাপালং, ৯। শফিকুল ইসলাম চৌধুরী (৫২), পিতা মৃত শামশুল আলম, সাং-রত্নাপালং, রত্নাপালং ইউপি, ১০। মোঃ সেলিম (৩৭), পিতা-মোঃ হোছন, সাং-ক্যাম্প ঢালা, রাজাপালং, ১১। শামশুল আলম (৪০), পিতা-শহর মুলুক, সাং-মাছকারিয়া, রাজাপালং, সর্বথানা-উখিয়া, জেলা-কক্সবাজারসহ অজ্ঞাতনামা ৩০/৪০ জনের সংঘবদ্ধ চক্র ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত আমার সূদীর্ঘকালের সত্ত্ব দখলীয় টিনশেড দোকানগৃহ ও জমি জবর দখলের পায়তারা ও ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে।

যেখানে অভিযুক্তদের কোন প্রকার সত্ত্ব, দখলামল নাই ও ছিল না।

যার ফলশ্রুতিতে ২৭ মে দিবাগত রাত ৩টার দিকে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জবর দখলের চেষ্টা করে। তখন টিনের ঘেরা টেংরা বিনষ্ট করতঃ অনুমান ৩০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে এমনটি জানায় ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষক শাহজাহান।

তিনি এও বলেন, তাৎক্ষণিক পুলিশী সহায়তায় বড় ধরণের ঘটনা এবং ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পায়। এখন আমি সহ পরিবারজন নিয়ে আশংকাজনক দিন কাটাচ্ছি। কারণ বিবাদীগণ প্রাণনাশের মতো প্রকাশ্যে হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে যাচ্ছে।

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাস্টার শাহজানের পৈত্রিক জায়গা দখল করতে চাওয়ার খবর শুনে সহমর্মিতা প্রকাশ করেন উখিয়া উপজেলা যুবলীগ সভাপতি মুজিবুল আজাদ। এ ঘটনায় দখলবাঁজদের হুশিয়ারি দেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত কয়েকজনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও সংযোগ না পাওয়ায় তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আহাম্মদ সঞ্জুর মোর্শেদ জানিয়েছেন, গভীর রাতে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বিরোধের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।