ঢাকা, বুধবার, ২৫ মে ২০২২

মাদক বিক্রেতার ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ আহত ৪

প্রকাশ: ২০২২-০৫-১৩ ২০:৩১:৪৬ || আপডেট: ২০২২-০৫-১৩ ২০:৩১:৪৬

বার্তা পরিবেশকঃ

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে মাদক বিক্রেতার ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ চার জন আহত হয়েছেন। উক্ত ঘটনায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে (১৩ মে) পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। তবে এখন পর্যন্ত হামলাকারী কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে কাকিনা মহিপুর বাইপাস সড়কে উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের সিরাজুল মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পরে কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান বাদী হয়ে ৩৬(১) ও ১৩(গ) এর ৩৮, ৪১, ১৮৬, ৩৩২, ৩৩৩, ৩৫৩ ধারায় মামলা দায়ের করেন। এজাহারনামীয় দুই জন ও অজ্ঞাত আরও দুই জনকে এতে আসামি করা হয়।

আহতরা হলেন, কালীগঞ্জ থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) শাহজাহান আলী ও এএসআই মমতাজ উদ্দিন এবং কাকিনা ইউনিয়নের চর ইশোরকোল এলাকার রিয়াজুল ইসলামের ছেলে মজমুল ইসলাম (৩২) ও একই এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আব্দুল খালেক।

কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কালীগঞ্জ থানা পুলিশের একটি টিম উপজেলার মহিপুর-কাকিনা সড়কের সিরাজুল মার্কেট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঢাকা মেট্রো গ-১১-৫১১২ নম্বরের একটি প্রাইভেটকার আটক করে।

এ সময় গাড়িটিতে তল্লাশি চালালে চালক ও তার সহযোগী গাড়ি থেকে নেমে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে অতর্কিতভাবে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। পুলিশ সদস্যদের চিৎকারে স্থানীয় দুই পথচারী এগিয়ে এলে তাদেরকেও ছুরিকাঘাত করে গাড়ি রেখে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা। পরে গাড়িটি তল্লাশি চালিয়ে ১৮০ বোতল ফেনসিডিল ও একটি বিদেশি চাকু উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, সরকারি কাজে বাঁধা দান ও ছুরিকাঘাতের ঘটনায় কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

কালীগঞ্জ থানার (ওসি) গোলাম রসূল বলেন, মাদক উদ্ধার অভিযানে থাকা দুই পুলিশ সদস্য এবং তাদেরকে সহায়তা করতে গিয়ে দুই জন পথচারীও ছুরিকাঘাতে আহত হন। আহতদের চিকিৎসা চলছে। আটক প্রাইভেটকার থেকে ১৮০ বোতল ফেনসিডিলও উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। এজাহারনামীয়সহ অজ্ঞাত আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সিএসবি-টুয়েন্টিফোর; ১৩/৫-(অ)